শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স FD ক্যালকুলেটর

SBI RD Scheme: স্টেট ব্যাংক রেকারিং ডিপোজিট স্কিম! মেয়াদ শেষে পাবেন 8 লক্ষ টাকা রিটার্ন।

Photo of author

By Anjan Mahata

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

State Bank of India Recurring Deposit Scheme: দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্যাংক স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া গ্রাহকদের বিভিন্ন সময় স্বল্পমেয়াদি ও দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগে খুব ভালো রিটার্ন দিয়ে থাকে। SBI হল দেশের বৃহত্তম ব্যাংক এবং এর শাখা গ্রাম থেকে শহরে বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে রয়েছে, এই ব্যাংক গ্রাহকদের কাছে খুবই বিশ্বস্ত। স্টেট ব্যাংক তার গ্রাহকদের বিভিন্ন স্কিম অফার করে থাকে তার মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় একটি স্কিম হল স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিট স্কিম। আজকের এই প্রতিবেদনে স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিট সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে তাই সম্পূর্ণ তথ্য জানতে আজকের এই প্রতিবেদনটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

স্টেট ব্যাংক রেকারিং ডিপোজিট স্কিম (SBI RD Scheme)

স্টেট ব্যাংক তার গ্রাহকদের ৭ থেকে ১০ বছরের রেকারিং ডিপোজিট স্কিম (SBI RD Scheme) ব্যবহার করে থাকে। এক্ষেত্রে ব্যাংক আপনাকে সর্বোচ্চ ৭ শতাংশ পর্যন্ত সুদের হার অফার করে থাকে। স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিটে আপনি প্রতি মাসে ১০০ টাকা থেকে বিনিয়োগ করতে পারেন।

কারা একাউন্ট খুলতে পারবেন

এবার প্রথমেই জেনে নেওয়া যাক স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিট স্কিমে কোন কোন ব্যক্তি অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন।

  • ভারতবর্ষের যে কোন প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যাক্তি স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিট একাউন্ট খুলতে পারবেন।
  • এছাড়াও কোন অপ্রাপ্তবয়স্ক বাচ্চা অর্থাৎ যার বয়স ১৮ বছরের নিচে তারাও স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিট একাউন্ট খুলতে পারবেন এক্ষেত্রে তার অভিভাবকরা সম্পূর্ণ টাকা পরিচালনা করতে পারবে।
  • বিদেশের যেকোনো ব্যক্তি স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিট একাউন্ট খুলতে পারবে সেক্ষেত্রে তাদের Non-Resident External (NRE) বা Non-Resident Ordinary (NRO) account এ আবেদন করতে হবে।

স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিটে সুদের পরিমাণ (SBI RD Interest Rate 2024)

এবার দেখে স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিটে সুদের পরিমাণ অর্থাৎ আপনি যদি SBI RD তে টাকা জমা করেন তাহলে কত সময়ের জন্য টাকা রাখলে কত সুদ পাবেন সমস্ত কিছু নিচের তালিকা থেকে জেনে নিন।

বিনিয়োগের সময়সীমা সুদের পরিমাণ 
সাধারণ ব্যাক্তি সিনিয়র সিটিজেন 
১ বছর থেকে ১ বছর ৩৬৪ দিন ৬.৮০ শতাংশ ৭.৩০ শতাংশ 
২ বছর থেকে ২ বছর ৩৬৪ দিন ৭.০০ শতাংশ ৭.৫০ শতাংশ 
৩ বছর থেকে ৪ বছর ৩৬৪ দিন৬.৫০ শতাংশ ৭.০০ শতাংশ 
৫ বছর থেকে ১০ বছর ৬.৫০ শতাংশ ৭.০০ শতাংশ 
SBI RD Interest Rate 2024

আরোও পড়ুন » SBI FD Interest Rates 2024: FD-তে নতুন সুদের হার জারি করল SBI, জেনেনিন এবার কতদিনে কতো সুদ পাবেন

কত টাকা ডিপোজিট করতে হবে

স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিটে আপনি সর্বনিম্ন ১০০ টাকা থেকে বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন। ১০০ টাকার পরবর্তী আপনাকে ১০ টাকার গুনিতকে টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। অর্থাৎ আপনি চাইলে ১১২ টাকা বা ৫১৫ টাকা এভাবে বিনিয়োগ করতে পারবেন না আপনি যে টাকা প্রতিমাসে বিনিয়োগ করতে চান সেটি যেন ১০ দ্বারা ভাগ করা যায় অর্থাৎ আপনি ১০০ টাকা ১০০০ টাকা ৫১০ টাকা এভাবে বিনিয়োগ করতে পারবেন। এছাড়াও স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিটে আপনি সর্বোচ্চ যত খুশি টাকা বিনিয়োগ করতে পারবেন।

স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিটের সুবিধা সমূহ

এবার দেখে নিন আপনি যদি স্টেট ব্যাংকে রেকারিং ডিপোজিট একাউন্ট ওপেন করেন তাহলে কি কি সুবিধা পাবেন।

  • স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিটে আপনি সর্বনিম্ন ১০০ টাকা থেকে বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন এবং আপনার যদি কম আয় হয় তাহলেও বিনিয়োগ করতে পারেন।
  • এক্ষেত্রে আপনি ১ থেকে ১০ বছরের মেয়াদ পেয়ে যাচ্ছেন আপনি আপনার নিজের পছন্দ মত মেয়াদ নির্বাচন করতে পারেন।
  • স্টেট ব্যাংকের RD তে সিনিয়র সিটিজেনরা ০.৫০ বেসিস পয়েন্ট হারে বেশি সুদ পাবে।
  • এছাড়াও এক্ষেত্রে আপনি নমিনির সুবিধা পেয়ে যাবেন।
  • স্টেট ব্যাংকের RD একাউন্ট থেকে আপনি লোন নিতে পারবেন এক্ষেত্রে আপনি আপনার জমানো টাকার ৯০ শতাংশ পর্যন্ত লোন নিতে পারবেন।
  • এছাড়াও আপনি SBI RD তে ট্যাক্স এর ছাড় পেয়ে যাবেন।

আরোও পড়ুন » SBI FD: স্টেট ব্যাংকের ফিক্সড ডিপোজিটে 5 লক্ষ টাকা জমা করে কত পাবেন দেখুন? 2024 এর নতুন সুদের হার অনুযায়ী।

কিভাবে আপনি স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিট একাউন্ট খুলবেন

স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিট একাউন্ট আপনি অনলাইন এবং অফলাইন দুইভাবেই ওপেন করতে পারেন। অফলাইনে অ্যাকাউন্ট ওপেন করার জন্য আপনাকে নিকটবর্তী ব্যাংক বা ব্যাংকের শাখার সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। এছাড়াও আপনি যদি অনলাইনে একাউন্ট ওপেন করতে চান সেক্ষেত্রে আপনি স্টেট ব্যাংকের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এবং মোবাইল অ্যাপ থেকে একাউন্ট ওপেন করতে পারেন।

প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট সমূহ

এরপর দেখে নিন আপনি যদি স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিট স্কিমে আবেদন করতে চান সেক্ষেত্রে যে যে ডকুমেন্টগুলোর প্রয়োজন হবে সেগুলি হল » (১) আধার কার্ড বা ভোটার কার্ড, (২) প্যান কার্ড, (৩) সিনিয়র সিটিজেন আইডি কার্ড (আপনি যদি সিনিয়র সিটিজেন হয়ে থাকেন) (৪) রেশন কার্ড, (৫) ব্যাংক একাউন্টের স্টেটমেন্ট ইত্যাদি।

আরোও পড়ুন » SBI MODS: স্টেট ব্যাংকের সেভিংস একাউন্টে পাবেন ফিক্সড ডিপোজিটের সুদ, SBI-তে অ্যাকাউন্ট থাকলে অবশ্যই দেখুন।

প্রতিমাসে নির্দিষ্ট সময় টাকা না জমা করতে পারলে কি হবে

এবার জেনে নেওয়া যাক আপনি যদি স্টেট ব্যাংক রেকারিং ডিপোজিটে বিনিয়োগ করেন তাহলে আপনি যদি কোন মাসে টাকা দিতে না পারেন সে ক্ষেত্রে কি হবে? প্রথমত আপনি যদি ৫ বছরের কম সময়ের রেকারিং ডিপোজিটে বিনিয়োগ করেন তাহলে প্রতি ১০০ টাকায় আপনাকে ১.৫০ জরিমানা দিতে হবে এবং আপনি যদি পাঁচ বছরের বেশি সময়ের রেকারিং ডিপোজিটে বিনিয়োগ করেন তাহলে আপনাকে প্রতি ১০০ টাকায় ২ টাকা জরিমানা দিতে হবে। তাই আপনি অবশ্যই খেয়াল রাখবেন আপনার ব্যাংক একাউন্টে যেন নূন্যতম টাকা থেকে থাকে।

SBI RD অকাল প্রত্যাহারের নিয়ম

স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিট স্কিমে আপনি প্রিম্যাচিউর ক্লোজ বা অকাল প্রত্যাহার করতে পারবেন। অর্থাৎ আপনি আপনার টাকা মেয়েদের আগেই তুলে নিতে পারবেন। যদি আপনার জমা করা টাকা মেয়েদের আগে তুলে নিতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে নামমাত্র জরিমানা দিতে হবে।

স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিট উদাহরণ

আপনি যদি স্টেট ব্যাংকের রেকারিং ডিপোজিটে প্রতি মাসে 5000 টাকা করে ১০ বছর পর্যন্ত জমা করেন এবং আপনি যদি ৬.৫ শতাংশ হারে সুদ পান সেক্ষেত্রে আপনি মেয়াদ শেষে মোট ৮ লক্ষ টাকার রিটার্ন পাবেন।

অবশ্যই পড়ুন » SBI: স্টেট ব্যাঙ্ক একাউন্ট থাকলে ৩১ শে মার্চ পর্যন্ত পাবেন এই পরিষেবাগুলো, সময় থাকতে দেখে নিন।

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us