শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

Business Idea: পশ্চিমবঙ্গে লাভজনক এমন ৫টি ম্যানুফ্যাকচারিং ব্যাবসার পরিকল্পনা, কম পুঁজির ব্যাবসা

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Top 5 Profitable Manufacturing Business Idea in West Bengal: পশ্চিমবঙ্গে অসংখ্য ব্যাবসা শুরু করে সফল হওয়া যাবে। কিন্তু এই নিবন্ধে শুধুমাত্র পশ্চিমবঙ্গে লাভজনক ম্যানুফ্যাকচারিং ব্যাবসা সম্পর্কে জানবো। আজ আমরা এমন ৫টি ম্যানুফ্যাকচারিং ব্যাবসা সম্পর্কে জানবো, যেগুলি পশ্চিমবঙ্গে শুরু করে ভালো লাভ করতে পারবেন। আপনিও যদি পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের একজন বাসিন্ধা হয়ে থাকেন এবং নিজের রাজ্যেই কিছু ব্যাবসা শুরু করার কথা ভাবছেন তাহলে এই নিবন্ধটি বিশেষভাবে আপনার জন্য। 

পশ্চিমবঙ্গে লাভজনক ম্যানুফ্যাকচারিং ব্যাবসা (Top 5 Profitable Manufacturing Business Idea in West Bengal) 

পশ্চিমবঙ্গে চালু করা যাবে, এই ধরনের অনেক ব্যাবসা রয়েছে। তবে, আজ আমরা পশ্চিমবঙ্গে লাভজনক এমন ৫টি ম্যানুফ্যাকচারিং ব্যাবসার পরিকল্পনা (Profitable Manufacturing Business Idea) সম্পর্কে জানবো। আপনি যদি পশ্চিমবঙ্গে কোনো পণ্য তৈরি করে আয় করার কথা ভাবছেন তাহলে এই ৫টি ম্যানুফ্যাকচারিং ব্যাবসা শুরু করতে পারেন। যেগুলি নিম্নরূপ: 

1) ফেস মাস্ক ম্যানুফ্যাকচারিং 

মুখোশ বা ফেস মাস্ক আমাদের প্রত্যেকের দৈনন্দিন জীবনে প্রয়োজন। করোনা মহামারীর সময় থেকে এর চাহিদা আরও অনেক বেড়ে গেছে। তাই আপনি যদি ফেস মাস্ক ম্যানুফ্যাকচারিং করেন তাহলে সহজেই বিক্রি হয়ে যাবে। তাছাড়া ফেস মাস্ক তৈরি করার প্রক্রিয়াও খুব সহজ এবং কম বিনিয়োগেই করতে পারবেন। 

মুখোশ তৈরি করার জন্য আপনার শুধুমাত্র কাপড়, সেলাই মেশিন, কাগজ, সূচ, সুতোর প্রয়োজন হবে। এছাড়াও নকশা কাটার জন্য কলম, স্কেল এবং কাঁচির দরকার। এগুলি দিয়েই আপনি ফেস মাস্ক ম্যানুফ্যাকচারিং এর কাজ শুরু করতে পারবেন। 

আপনি চাইলে বিভিন্ন ধরনের ফেস মাস্ক তৈরি করে বাজারে বিক্রি করতে পারেন। যেমন: কাপড়ের ফেস মাস্ক, সার্জিক্যাল মাস্ক, N95 মাস্ক এবং ডিজাইনার ফেস মাস্ক। আপনি এগুলি তৈরি করার পর সরাসরি বাজারে গিয়ে, হোলসেলারকে, অনলাইন প্লাটফর্মে এবং নিজের ওয়েবসাইট তৈরি করেও বিক্রি করতে পারেন।

আরও পড়ুন: Business Idea – কম টাকাতে শুরু করুন মোবাইলের এই দ্রব্যের ব্যবসা, প্রতি মাসে আয় 30 হাজার টাকা।

2) স্যানিটাইজার ম্যানুফ্যাকচারিং 

করোনা মহামারীর সময় থেকে শুধুমাত্র ফেস মাস্ক নয়, তার সঙ্গে স্যানিটাইজারের ব্যাবহারের পরিমাণও অনেক বেড়ে গেছে। তাই আপনি বাড়িতে স্যানিটাইজার ম্যানুফ্যাকচারিং করে সস্তায় বিক্রি করতে পারবেন এবং অধিক লাভ করতে পারবেন। আপনি কম পুঁজিতে এই ব্যাবসা শুরু করতে পারবেন। 

স্যানিটাইজার তৈরি করার জন্য ইসোপ্রোপাইল অ্যালকোহল (৭০%), অ্যালোভেরা জেল, গ্লিসারিন এবং এসেনশিয়াল অয়েল (ঐচ্ছিক) প্রয়োজন। স্যানিটাইজার তৈরি করার জন্য প্রথমে একটি পরিষ্কার পাত্রে ৭০% ইসোপ্রোপাইল অ্যালকোহলের সাথে অ্যালোভেরা জেল এবং গ্লিসারিন মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর মিশ্রণটি ভালোভাবে নাড়ুন যতক্ষণ না এটি সম্পূর্ণভাবে মিশে যায়। আপনি যদি চান, মিশ্রণে কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল যোগ করতে পারেন। স্যানিটাইজার মিশ্রণটি একটি স্প্রে বোতলে ভরে নিন।

আরও পড়ুন: Business Idea – অল্প পুঁজিতে মোটা টাকা আয়! এই ব্যাবসা শুরু করলেই লাগবে গ্রাহকের লাইন।

3) গার্মেন্ট ম্যানুফ্যাকচারিং 

কলকাতা দীর্ঘদিন ধরে পোশাকের জন্য বিখ্যাত। তাই পশ্চিমবঙ্গে গার্মেন্ট ম্যানুফ্যাকচারিং ব্যাবসা শুরু করার খুবই লাভজনক হবে। কিন্তূ বর্তমানে এতে কম্পিটিশন প্রচুর। তাই আপনাকে বাজার গবেষণা খুবই ভালোভাবে করতে হবে। সঙ্গে আপনাকে পোশাক তৈরি করার জন্য দক্ষ ও অভিজ্ঞ কর্মী রাখতে হবে। 

কম পুঁজিতে এই ব্যাবসা শুরু করা খব মুশকিল হবে, এতে আপনাকে অন্যান্য ব্যাবসার তুলনায় বেশি অর্থ বিনিয়োগ করতে হবে। গার্মেন্ট ম্যানুফ্যাকচারিং করার পর আপনি সরাসরি বাজারে গিয়ে, হোলসেলারকে, অনলাইন প্লাটফর্মে (যেমন: ফ্লিপকার্ট, আমাজন, মিশো ইত্যাদি) এবং নিজের ওয়েবসাইট তৈরি করেও বিক্রি করতে পারেন। ব্যাবসাটি কোনো বড়ো শহরে বা শহরের পারে শুরু করলে খুব ভালো হয়।

আরও পড়ুন: Business Idea – কম পুঁজির এই ব্যাবসায় নেই প্রতিযোগী, ব্যাবসার শুরু করলেই লাখ লাখ টাকা আয়।

4) সরষের তেল উৎপাদন 

পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলার স্থানীয় খবর তৈরি করতে সরষের তেল এর প্রয়োজন হয়। খাবারে ভালো স্বাদ এবং সুগন্ধ আনার জন্য রধুনিরা সরষের তেল ব্যাবহার করে থাকে। তাই পশ্চিমবঙ্গে সরষের তেল উৎপাদনের ব্যাবসা একটি লাভজনক ব্যাবসা হতে পারে। এই ব্যাবসা শুরু করার জন্য আপনাকে একটি সরষে পেশায় করা মেশিন কিনতে হবে। এরপর স্থানীয় বাজার বা সরাসরি চাষীদের কাছ থেকে কিনে পেশায় করে তেল তৈরি করতে হবে। এরপর বোতলে ভরে বা প্যাকেট করে বাজারে বিক্রি করতে হবে।

আরও পড়ুন: Biriyani Business – এইভাবে শুরু করুন বিরিয়ানি ব্যবসা, ভবিষ্যতে বাড়বে বিপুল চাহিদা।

5) রান্নার মশলা তৈরি 

বাঙালি মনে খবরের শকিন, আর খবরকে আরও সুস্বাদু বানানোর জন্য মশলা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। খাবারে আরও ভালো স্বাদ এবং সুগন্ধ নিয়ে আসার জন্য রাধুনিরা মশলা ব্যাবহার করে। এই পশ্চিমবঙ্গে রান্নার মশলা তৈরির ব্যাবসা খুই ভালো চলবে। কিন্তূ আপনার তৈরি করা মশলার রং, গন্ধ এবং স্বাদ ভালো না হলে ব্যাবসা চলবে না। তৈরি করা মশলা আপনাকে পাইকারি বিক্রি করতে হবে। 

আরও পড়ুন: Business Idea: বাড়িতে ফেলে দেওয়া এই দ্রব্য দিয়ে তৈরি করুন ব্যাবসা, প্রতিমাসে আয় ১০,০০০ টাকা।

উপসংহার 

পশ্চিমবঙ্গে অনেক ধরনের ব্যাবসা শুরু করা যাবে। কিন্তূ আপনি যদি কোনো ম্যানুফ্যাকচারিং ব্যাবসা শুরু করার পরিকল্পনা করছেন তাহলে এই ৫টি ব্যাবসার উপর নজর দিতে পারেন। যথা, ফেস মাস্ক ম্যানুফ্যাকচারিং, স্যানিটাইজার ম্যানুফ্যাকচারিং, গার্মেন্ট ম্যানুফ্যাকচারিং, সরষের তেল উৎপাদন এবং রান্নার মশলা তৈরি ইত্যাদি।

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us