শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

Business Idea: অল্প পুঁজিতে মোটা টাকা আয়! এই ব্যাবসা শুরু করলেই লাগবে গ্রাহকের লাইন

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Business Idea: অল্প পুঁজিতে মোটা টাকা আয় করার জন্য এমন কিছু ব্যাবসা করতে হবে যাতে আপনি অধিক লাভে পণ্য বিক্রি করতে পারবেন। এজকে আমরা এমনি একটি ব্যাবসা সম্পর্কে জানবো যাতে আপনি ১০ টাকার পণ্য ১০০ টাকায় বিক্রি করে অধিক লাভবান হতে পারেন। এই ব্যাবসা শুরু করলে গ্রাহকের অভাবও হবে না। কি এই ব্যাবসা? এবং করা এই ব্যাবসা শুরু করতে পারবে? এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানব আজকের এই নিবন্ধে। 

স্ক্র্যাপ বা পুরাতন জিনিসের ব্যাবসা 

ভারতে পুরাতন জিনিসপত্র দু-রকম ভাবে বিক্রি করা যায়, জিনিসটি ভালো অবস্থায় থাকে সেকেন্ড হেন্ড রূপে এবং অকেজো হলে স্ক্র্যাপ রূপে। কিন্তূ এর বাইরেও পুরাতন জিনিসের একটি বাজার রয়েছে ইউরোপে একে বলা হয় FLEA MARKE। এই ব্যাবসায় প্রচুর আয় করা সম্ভব। এতে আপনি কেনার খরচের ১০ গুন বেশি দামে পণ্য বিক্রি করতে পারবেন।

উদাহরণ স্বরূপ, ধরেননি কোনো এক পুরাতন বাইক এর পার্টস বানানো বন্ধ করে দিয়েছে কোম্পানি। কিন্তূ কিছু লোক এখনো ওই বাইক ব্যাবহার করছে। এখন যদি তাদের বাইকের কোনো একটি পার্টস অকেজো হয় তাহলে, বাজারে কোথাও ওই পার্টস না পেয়ে আপনার কাছ থেকেই কিনবে। পুরাতন পার্টসের দাম খুব কম, কিন্তূ আপনি তাকে ওই পার্টস অনেক দমে বিক্রি করতে পারবেন। এই ধরনের পণ্যের আসল দাম কেউ জানেনা, তাই গ্রাহক ভাববে আপনি ন্যায্য মূল্যেই বিক্রি করছেন। বাইক শুধুমাত্র একটি উদাহরণ আপনি পুরাতন ইলেকট্রিক দ্রব্য এবং পুরাতন ফ্যাশনের দ্রব্যের স্ক্র্যাপও বিক্রি করতে পারেন। 

আরও পড়ুন: Business Idea – কম পুঁজির এই ব্যাবসায় নেই প্রতিযোগী, ব্যাবসার শুরু করলেই লাখ লাখ টাকা আয়।

অল্প পুঁজিতে মোটা টাকা আয় 

যেকোনো পুরাতন ও অকেজো জিনিসপত্র কিনতে গেলে জলের দমে পেয়ে যাবেন। এরপর যে গ্রাহকের ওই জিনিস প্রয়োজন হবে তাকে সাধারণ মূল্যে বিক্রি করলেও অনেক লাভ করতে পারবেন। কোনো এক অকেজো জিনিসের মূল্য যদি ১০০ টাকা হয় তাহলে, যার কাছে সেটি অকেজো তার কাছ থেকে ১০ টাকায় সেটি কিনতে পারবেন। এরপর যার এটি প্রয়োজন তাকে ১০০ টাকা বা এর বেশি দামে বিক্রি করতে পারবেন। এরথেক অনুমান করতে পারেন যে অল্প পুঁজিতে কতো বেশি টাকা আয় করা সম্ভব। 

আরও পড়ুন: Business Idea – কম খরচে এইভাবে শুরু করুন প্যাকিং ব্যবসা, প্রতি মাসে প্রচুর আয় করবেন আপনিও।

কিভাবে এই ব্যাবসা শুরু করবেন? 

শুরুতে আপাকে বেশকিছু পুরাতন জিনিসপত্র কিনতে হবে। পুরাতন জিনিসপত্রের দাম কম হবার কারণে কম পুঁজিতেই এই ব্যাবসা শুরু করা যাবে।  আপনার কাছে যেসমস্ত পণ্য উপলব্ধ থাকবে সেগুলিকে অনলাইনে লিস্ট করতে হবে। আপনি সোশ্যাল মিডিয়াতেও লিস্ট করে রাখতে পারেন। এরফলে খদ্দেররা জানবে আপনার কাছে গেলেই তাদের প্রয়োজনীয় জিনিস পাওয়া যাবে। এরপর আপনি যদি সপ্তাদের একদিন কোনো জায়গায় তাবু খাটিয়ে পণ্য বিক্রি করেন তবুও আপনার কাছ খদ্দের যাবে। এরপর ব্যাবসা ঠিকমতো চলতে শুরু করলে ধীরে ধীরে ব্যাবসা আরও বাড়াতে হবে। 

আরও পড়ুন: Biriyani Business – এইভাবে শুরু করুন বিরিয়ানি ব্যবসা, ভবিষ্যতে বাড়বে বিপুল চাহিদা।

জেকেও এই ব্যাবসা শুরু করতে পারে 

একজন যুবক বা মহিলা বা অবসর প্রাপ্ত ব্যক্তিরাও এই ব্যাবসা শুরু করতে পারে। এই ব্যাবসা শুরু করার জন্য কোনো বিশেষ শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রয়োজন নেই, শুধুমাত্র পুরাতন জিনিসপত্রের সম্বন্ধে কিছুটা জ্ঞান থাকতে হবে। যেমন, কোন্ কোন্ পুরাতন বাইক বা গাড়ির নতুন পার্টস কোম্পানি তৈরি করছে না কিন্তূ বাজারে এখনো চাহিদা রয়েছে। কোন্ কোন্ পুরাতন ইলেকট্রনিক্স জিনিসের পার্টস বাজারে পাওয়া যাচ্ছে না। কোন্ কোন্ পুরাতন ফ্যাশন দ্রব্যের চাহিদা এখনো রয়েছে। এই সব বিষয়ে খবরাখবর রাখা প্রয়োজন। সমস্ত বিভাগের না হলেও, যে বিভাগের পণ্য আপনি বিক্রি করবেন সেই সম্পর্কে খবর রাখলেই হবে। 

আরও পড়ুন: Business Idea: বাড়িতে ফেলে দেওয়া এই দ্রব্য দিয়ে তৈরি করুন ব্যাবসা, প্রতিমাসে আয় ১০,০০০ টাকা।

উপসংহার 

পুরাতন জিনিসপত্র স্ক্র্যাপ রূপে বিক্রি করে আপনি মোটা টাকা আয় করতে পারেন। এই ব্যাবসা শুরু করার জন্য অনেক বেশি মূলধনের প্রয়োজন হবে না। এতে আপনি ১০ টাকার পণ্য ১০০ টাকা বা এরও বেশি দামে বিক্রি করতে অধিক লাভ করতে পারবেন। স্ক্র্যাপ বা পুরাতন জিনিসের ব্যাবসা সম্পর্কে উপরে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। 

আরও পড়ুন: Business Idea: টি-শার্ট প্রিন্টিং ব্যাবসা মাসে ৫০ হাজার টাকার অধিক আয় করুন, রইল সম্পূর্ন পদ্ধতি।

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us