শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স FD ক্যালকুলেটর

RBI Bonds: দ্রুত টাকা বাড়াতে চান? ব্যাঙ্কের FD-এর পরিবর্তে RBI বন্ডে বিনিয়োগ করুন। রইল বিস্তারিত তথ্য

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

RBI Bonds: আমরা সকলেই জানি, সেভিংস অ্যাকাউন্টে টাকা রাখলে খুব কম পরিমাণ পাওয়া যায়। তাই অনেকে নিজের টাকা বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন ব্যাংকে FD করেন বা পোস্ট অফিসের বিভিন্ন স্কিমে বিনিয়োগ করেন। অনেকেই এটা জানে না যে RBI বন্ডে বিনিয়োগ করে তারা FD-এর চেয়েও বেশি রিটার্ন পেতে পারে। RBI বন্ডে বিনিয়োগ করা নিরাপদ বিনিয়োগ বলে বিবেচিত হয়। এখানে কিভাবে বিনিয়োগ করবেন? এবং কতো সুদ পাবেন? এই নিয়েই আজকের এই নিবন্ধ। 

RBI বন্ড কী? 

ভারত সরকার দ্বারা জারি করা ফ্লোটিং রেট সেভিংস বন্ডকে আরবিআই বন্ড (RBI Bond) বলা হয়। এতে স্থায়ী সুদ পাওয়া যায় না, ৬ মাস অন্তর সুদের হার পরিবর্তিত হয়। এখানে আপনারা সর্বনিম্ন ১০০০ টাকা থেকে বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন। এখানে বিনিয়োগ করার কোন উর্ধ সীমা নেই। 

যেকোনো সরকারি ব্যাঙ্ক এবং কিছু কিছু জনপ্রিয় বেসরকারি ব্যাঙ্ক থেকে এটি কিনতে পারবেন। এটি হস্তান্তর যোগ্য নয়, শুধুমাত্র বিনিয়োগকারী ব্যাক্তির মৃত্যুর পর নমনীয় নামে হস্তান্তর করা যাবে। এছাড়াও বার্ষিক সুদের পরিমার ১০,০০০ টাকার বেশি হলে TDS করা হয়। 

করা বিনিয়োগ করতে পারবে? 

RBI বন্ডে বিনিয়োগ করার জন্য আপনাকে একজন স্থায়ী ভারতীয় নাগরিক হওয়া প্রয়োজন। NRI রা এখানে আবেদন বিনিয়োগ পারবেন না। আপনি যদি প্রাপ্তবয়স্ক হন তাহলে এখানে বিনিয়োগ করতে পারবেন। এছাড়াও আপনি একজন অভিভাবক হয়ে নাবালকের জন্য নিয়োগ করতে পারেন এবং এখানে যৌথ ভাবেও আবেদন করা যাবে। 

সুদের হার

এটি একটি ফ্লোটিং রেট সেভিংস বন্ড হওয়ার কারণে সুদের হার স্থায়ী থাকে না। RBI Bonds এর সুদের হার ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট (NSC) অনুযায়ী নির্ধারণ করা হয়। প্রতি ছয় মাস অন্তর অর্থাৎ ১লা. জানুয়ারি এবং ১লা. জুলাই NSC-এর সুদের হারের সঙ্গে ৩৫ বেসিস পয়েন্ট যুক্ত করে RBI বন্ডের সুদ নির্ধারণ করা হয়। 

উদহারন স্বরূপ, যদি ১ জানুয়ারি থেকে ১ জুলাই-এ (অর্ধবর্ষে) NSC এর সুদের হার ৭.৭% হয়। তাহলে RBI বন্ডের সুদের হার ৮.৫% হবে। 

RBI Bonds-এর মেয়াদ 

RBI Bonds-এ বিনিয়োগ করার মেয়াদ (লক-ইন পিরিয়ড) হলো ৭ বছরের। অর্থাৎ এখানে আপনাকে ৭ বছরের জন্য টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। টাকা বিনিয়োগ করা ৭ বছর পূর্ন হওয়া পর্যন্ত আপনি ওই টাকা তুলতে পারবেন না। শুধুমাত্র প্রবীণ নাগরিকদের নিয়ম অনুযায়ী অকাল রিডেম্পশন অনুমোদিত হবে। ৬০ থেকে ৭০ বছরের নাগরিক দের জন্য মেয়াদ ৬ বছর, ৭০ থেকে ৮০ বছরের নাগরিকদের জন্য মেয়াদ ৫ বছর এবং ৮০ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সের নাগরিকদের জন্য মেয়াদ ৪ বছর। 

আরও পড়ুন: SCSS – সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম, প্রতিমাসে ২০ হাজার টাকার বেশি আয় করার সুযোগ।

RBI বন্ডে কিভাবে বিনিয়োগ করব? 

আপনারা ভারতের যেকোনো সরকারি ব্যাঙ্ক বা বড়ো বড়ো বেসরকারি ব্যাঙ্ক থেকে RBI বন্ডে বিনিয়োগ করতে পারবেন। এরজন্য আপনাকে নিকটবর্তী ব্যাঙ্ক এর ব্রাঞ্চে যেতে হবে। এরপর ফর্ম পূরণ করে এবং কিছু ডকুমেন্টস এর কপি জমা করে টাকা পরিশোধ করতে হবে। বিনিয়োগ করার আগে ব্যাঙ্কের কর্মকর্তাদের কাছ থেকে এর সমন্ধে আরও ভালো ভাবে জেনে নেবেন। 

আরও পড়ুন: Bank এ কত টাকা রাখা উচিত? ট্যাক্স এড়াতে নগদ জমা টাকার সীমা জেনেনিন! একাউন্টে টাকা জমা ও তোলার নিয়ম।

*এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us

Disclaimer

এই নিবন্ধটি শুধুমাত্র শিক্ষা প্রদের উদ্দেশ্যে লেখা হয়েছে। ফাইনান্স বার্তা কাওকে বিনিয়োগ করার জন্য উৎসাহিত বা বাধ্য করে না। আপনি বিনিয়োগ করার আগে নিজের আর্থিক উপদেষ্টার পরামর্শ নিয়ে বিনিয়োগ করুন। বিনিয়োগের ফলে আপনার আর্থিক ক্ষতি হলে ফাইনান্স বার্তা কোনোভাবেই দায়ী থাকবে না।

F.A.Q

আরবিআই বন্ড কি হস্তান্তর করা যাবে?

না, আরবিআই বন্ড হস্তান্তর যোগ্য না। শুধুমাত্র বিনিয়োগকারীর মৃত্যুর পর নমনিত ব্যাক্তির নামেই হস্তান্তর করা যাবে।

RBI বন্ডের সুদের উপর কি কর (Tax) লাগবে?

হ্যাঁ, আর্থিক বছরে আপনার সুদ যদি ১০,০০০ টাকার বেশি হয় তবেই TDS কাটা হবে।

RBI বন্ডের সুদের হার কত?

RBI বন্ডের কোনো স্থির সুদের হার নেই। প্রতি ৬ মাসে NSC-এর হারের সঙ্গে ৩৫ bps যুক্ত করে এটির সুদের হার নির্বাচন করা হয়।

আরবিআই বন্ডে কে বিনিয়োগ করতে পারে?

সমস্ত প্রাপ্ত বয়স্ক স্থায়ী ভারতীয় নাগরিক (হিন্দু অবিভক্ত পরিবার) আরবিআই বন্ডে কে বিনিয়োগ করতে পারে। অভিবাবক রূপে নাবালকের নামেও বিনিয়োগ করতে পারবেন।

আমি কি এসবিআই থেকে আরবিআই বন্ড কিনতে পারি?

হ্যাঁ, আপনি এসবিআই বা অন্যান্য সরকারি ব্যাঙ্ক এবং বেশ কিছু বেসরকারি ব্যাঙ্ক থেকে আরবিআই বন্ড কিনতে পারবেন।

4 thoughts on “RBI Bonds: দ্রুত টাকা বাড়াতে চান? ব্যাঙ্কের FD-এর পরিবর্তে RBI বন্ডে বিনিয়োগ করুন। রইল বিস্তারিত তথ্য”

Leave a Comment