শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স FD ক্যালকুলেটর

PM Golden Hour Scheme: প্রধানমন্ত্রী গোল্ডেন আওয়ার স্কিম! পাবেন ১.৫ লক্ষ টাকার বীমা।

Photo of author

By Anjan Mahata

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

PM Golden Hour Scheme: দেশের অর্থনৈতিক ভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষদের স্বাস্থ্য সেবার ব্যবস্থা করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প চালু করেছিলেন আগেই। এবার লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে আয়ুষ্মান ভারত এর অধীনে গোল্ডেন আওয়ার স্কিম নামক নতুন একটি প্রকল্প চালু করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী। পথ দুর্ঘটনায় আহত মানুষদের এই প্রকল্পের মাধ্যমে নানা ধরনের সুবিধা প্রদান করা হবে। জেনে নিন এই প্রকল্প কি এবং এর সুবিধা গুলি সম্পর্কে।

গোল্ডেন আওয়ার স্কিম কি? (PM Golden Hour Scheme)

পথ দুর্ঘটনায় আহত মানুষের প্রাণ বাঁচাতে এবার তাদের পাশে থাকবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পরিচালিত ভারতীয় কেন্দ্রীয় সরকার। কোন ব্যক্তি যদি পথ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন তবে হাসপাতালে তারা এই প্রকল্পের অধীনে বিনামূল্যের দেড় লক্ষ টাকার চিকিৎসা করাতে পারবেন।

গোল্ডেন আওয়ার স্কিমের লক্ষ্য

চিকিৎসা বিজ্ঞানের পরিভাষায় যে কোন গুরুতর শারীরিক সমস্যার পরবর্তী ৬০ মিনিট রোগীর জীবনের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ। এই সময়কে চিকিৎসার পরিভাষায় বলা হয় গোল্ডেন আওয়ার। পথ দুর্ঘটনায় আহতদের ক্ষেত্রেও তার জীবন বাঁচাতে চাইলে একেবারে সময় নষ্ট না করে দ্রুত চিকিৎসা শুরু করতে হয়। চিকিৎসার এই গোল্ডেন আওয়ারেই দুর্ঘটনা গ্রস্থ মানুষের পাশে থাকতে চায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পরিচালিত কেন্দ্রীয় সরকার। এই কারণেই অর্থের কথা চিন্তা করে যাতে চিকিৎসায় কোন বিলম্ব না হয় সেই লক্ষ্য নিয়েই প্রধানমন্ত্রী চালু করতে চলেছেন এই গোল্ডেন আওয়ার প্রকল্প। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের উচ্চপদস্থ আধিকারিকের কথায় ২০২২ সালে সারাদেশে পথদুর্ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ১.৬৮ লাখ। কেন্দ্রীয় সরকার নতুন চালু করা গোল্ডেন আওয়ার স্কিম এর মাধ্যমে এই পথ দুর্ঘটনা ৫০ শতাংশ কমানোর লক্ষ্যমাত্রা গ্রহণ করেছে।

গোল্ডেন আওয়ার স্কিম-এর সুবিধা

কেন্দ্রে চালু করা নতুন এই গোল্ডেন আওয়ার স্কিম এর মাধ্যমে দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যে আহত ব্যক্তি যদি হাসপাতালে ভর্তি হন তবে তাদের অর্থ সাহায্য করা হবে। সাহায্য করা এই অর্থের মূল্য হবে দেড় লক্ষ টাকা পর্যন্ত। আমাদের দেশে এমন অনেক দরিদ্র মানুষ আছেন যারা দুর্ঘটনাগ্রস্থ হয়েও অর্থের অভাবে যথাযথ চিকিৎসা করাতে ব্যর্থ হন। এই প্রকল্প কেন্দ্রের তরফ থেকে ১ লক্ষ টাকা আর্থিক সহায়তা লাভ করলে তাদের চিকিৎসা লাভ করা এবং দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠা আরো সহজ হবে।

১.৫ লক্ষ টাকা খরচ নির্ধারণের কারণ

সড়ক পরিবহন দপ্তরের দেওয়া তথ্য অনুসারে জানা যায় পথ দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিদের মধ্যে প্রায় ৯৭ শতাংশের দুর্ঘটনার কারণে তৈরি হওয়া বিভিন্ন আঘাতের চিকিৎসা করাতে প্রায় ৬০ হাজার টাকা খরচ হয়ে যায়। গড় হিসাব ধরলে মোটামুটি তিন শতাংশ মানুষকে দীর্ঘদিন হাসপাতালে থাকতে হয় দুর্ঘটনা জনিত চিকিৎসা করানোর জন্য। এই কারণে দীর্ঘদিন থাকা এবং চিকিৎসা খরচের কথা চিন্তা করে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে দেড় লক্ষ টাকা পর্যন্ত অর্থ সাহায্য দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

অবশ্যই পড়ুন » স্বাস্থ্য সাথী কার্ডে কত টাকা আছে, বুঝতে পারছেন না? এভাবে খুব সহজে ব্যালেন্স চেক করে নিন

প্রকল্পের আর্থিক ব্যয়

কেন্দ্রীয় সরকারের দেওয়া তথ্য অনুসারে জানা গেছে প্রধানমন্ত্রী পরিচালিত এই গোল্ডেন আওয়ার প্রকল্পে পথ দূর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিদের চিকিৎসার খরচের ভার দেওয়া হয়েছে বীমা কোম্পানির ওপর। জানা গেছে সেই বীমা কোম্পানি থেকে পাওয়া যাবে ১০০ কোটি টাকা। এই টাকা দিয়েই এই প্রকল্পের সুবিধাভোগীদের সমস্যা দূরীকরণের চেষ্টা করা হবে।

আমাদের দেশে পথ দুর্ঘটনা এবং এই সম্পর্কিত মৃত্যু কমাতে গাড়ি নিরাপত্তা ব্যবস্থার দিকে বিশেষ গুরুত্ব দিতে চায় কেন্দ্রীয় সরকার। এই কারণে বাধ্যতামূলক ভাবে গাড়িতে কিছু ফিচারস লাগানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রের তরফ থেকে। কেন্দ্রের নির্দেশ অনুসারে সমস্ত গাড়ি নির্মাণকারী সংস্থা গুলির গাড়িতে অ্যান্টিলক ব্রেকিং সিস্টেম, এয়ার ব্যাগ, ওভার স্পিডিং অ্যালার্ট এবং সিট বেল্ট বাধ্যতামূলক বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

অবশ্যই পড়ুন » WB Sishu Saathi Scheme: রাজ্য সরকারের শিশু সাথী প্রকল্প! শিশুর চিকিৎসা মিলবে বিনামূল্য, অনলাইনে আবেদন করুন।

এই ধরনের গুরুত্বপূর্ন তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us