শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

কর (Tax) কি? এবং কত প্রকার? জেনেনিন বিস্তারিত তথ্য | Types of Taxes in Bengali

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Types of Taxes in Bengali: সমস্ত ভারতীয় নাগরিকদের এটা জানা প্রয়োজন যে ভারতে কর ব্যাবস্থা (Indian Tax System) কিভাবে কাজ করে। সরকারকে কর দেওয়াটা কতটা গুরুত্বপূর্ণ এবং আমাদেরকে কত প্রকারের কর দিতে হয়। কোনগুলো প্রত্যক্ষ কর? এবং কোনগুলো পরোক্ষ কর? এই সম্পর্কের বিস্তারিত তথ্য প্রদান করা হয়েছে আজকের এই নিবন্ধে। 

কর কী? (What is Tax)

কর (Tax) হলো সরকারের কাছে নাগরিকদের অর্থ প্রদানের একটি বাধ্যতামূলক ব্যবস্থা, এর মাধ্যমে সরকার দেশের উন্নতির জন্য নাগরিকদের কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহ করে। এটি একটি আর্থিক দায় যা নাগরিকদের সরকারি আয়ের একটি গুরুত্বপূর্ণ উৎস হিসাবে কাজ করে।  

ভারতের সমস্ত নাগরিকদের সরকারকে কর দেওয়া অত্যন্ত জরুরি। কারণ, সরকার করের অর্থ দিয়ে জনসাধারণের জন্য বিভিন্ন পরিষেবা প্রদান করে। উদাহরণস্বরূপ, রাস্তা, বিদ্যুৎ, পানি সরবরাহ, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবা, নিরাপত্তা, প্রতিরক্ষা এবং এই ধরনের বিভিন্ন পরিষেবার জন্য সরকারের অর্থের প্রয়োজন, যা কর ব্যবস্থার মাধ্যমে নাগরিকদের কাছ থেকে সংগ্রহ করা হয়।

করের প্রকারভেদ (Types of Taxes)

ভারতে কর ব্যবস্থা দুটি প্রধান বিভাগে বিভক্ত: প্রত্যক্ষ কর (Direct Tax) এবং পরোক্ষ কর (Indirect Tax)। ব্যক্তি এবং কর্পোরেশনের আয় বা সম্পদের উপর প্রত্যক্ষ কর ধার্য করা হয়, যখন পণ্য ও পরিষেবার বিক্রয় এবং বিধানের উপর পরোক্ষ কর ধার্য করা হয়। ভারতের কর কাঠামো একটি তিন-স্তরীয় কাঠামো, যেখানে কেন্দ্রীয় সরকার, রাজ্য সরকার এবং স্থানীয় কর্তৃপক্ষের দ্বারা কর আরোপ করা হয়।

প্রত্যক্ষ কর (Direct Tax)

এগুলো এমন কর যা সরাসরি আয়ের উপর আরোপ করা হয়। যেমন: 

আয়কর (Income Tax): এটি একটি প্রত্যক্ষ কর যা একটি আর্থিক বছরে ব্যক্তি এবং কর্পোরেশন দ্বারা অর্জিত আয়ের উপর চার্জ করা হয়। আয়করের হার আয়ের স্তর এবং করদাতার প্রকারের উপর নির্ভর করে পরিবর্তিত হয়। কর দায় কমানোর জন্য বিভিন্ন ছাড় ও ছাড় রয়েছে। আয়কর আয়কর আইন, 1961 দ্বারা পরিচালিত হয় এবং সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ডাইরেক্ট ট্যাক্সেস (CBDT) দ্বারা পরিচালিত হয়। 

ক্যাপিটাল গেইন ট্যাক্স (CGT): এটি একটি প্রত্যক্ষ কর যা মূলধন সম্পদ যেমন শেয়ার, সম্পত্তি, বন্ড ইত্যাদি স্থানান্তর থেকে উদ্ভূত লাভ বা ক্ষতির উপর আরোপ করা হয়। মূলধন লাভ করের হার সম্পদের ধরন এবং ধারণকালের উপর নির্ভর করে, এবং করদাতার আবাসিক অবস্থা। কর দায় কমানোর জন্য বিভিন্ন ছাড় ও সুবিধা রয়েছে। মূলধন লাভ কর আয়কর আইন, ১৯৬১ দ্বারা পরিচালিত হয় এবং CBDT দ্বারা পরিচালিত হয়। 

কর্পোরেট ট্যাক্স: এটি একটি প্রত্যক্ষ কর যা একটি আর্থিক বছরে কোম্পানি দ্বারা অর্জিত লাভের উপর আরোপ করা হয়। কর্পোরেট ট্যাক্স হার কোম্পানির ধরন এবং আকার এবং এটি যে সেক্টরে কাজ করে তার উপর নির্ভর করে। নির্দিষ্ট কিছু খাত এবং কার্যক্রমকে উন্নীত করার জন্য বিভিন্ন প্রণোদনা এবং ছাড় রয়েছে। কর্পোরেট ট্যাক্স আয়কর আইন, ১৯৬১ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় এবং CBDT দ্বারা পরিচালিত হয়।

সম্পত্তি কর (Wealth Tax): যদি কোনো ব্যক্তির সম্পত্তির মূল্য ৩০ লক্ষ টাকা ছাড়িয়ে যায়, তবে অতিরিক্ত অংশের ১% কর হিসাবে প্রদান করতে হয়। ২০১৫ সালে ঘোষিত বাজেটে এই করব্যবস্থার অবসান ঘটে। তারপরে, এটি প্রতি বছর ১ কোটি টাকার বেশি আয় করা ব্যক্তিদের উপর ১২% শুল্ক দিয়ে প্রতিস্থাপিত হয়েছে। এটি সেই সব সংস্থার উপরও প্রযোজ্য যারা প্রতি বছর ১০ কোটি টাকার বেশি আয় করে। 

উপহার কর (Gift Tax): ১৯৫৮ সালে প্রতিষ্ঠিত উপহার কর আইনে শুরুতে শেয়ার, গয়না এবং সম্পত্তি ইত্যাদি উপহারের উপর ৩০ শতাংশ কর ধার্য করা হতো। তবে ১৯৯৮ সালে এই কর বাতিল করা হয়। বর্তমান নিয়ম অনুযায়ী, পরিবারের সদস্যদের এবং স্থানীয় কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে পাওয়া উপহারগুলি করমুক্ত। অন্যদের কাছ থেকে পাওয়া ৫০,০০০ টাকার বেশি উপহারগুলি সম্পূর্ণরূপে করযোগ্য।

সিকিউরিটিজ ট্রানজেকশন ট্যাক্স (STT): এটি হল ভারতে স্বীকৃত স্টক এক্সচেঞ্জগুলিতে স্টক, মিউচুয়াল ফান্ড এবং ডেরিভেটিভগুলির মতো সিকিউরিটি ক্রয়-বিক্রয়ের উপর আরোপিত একটি কর। STT এর হার ট্রেড করা সিকিউরিটির ধরনের উপর নির্ভর করে।

পরোক্ষ কর (Indirect Tax)

এগুলো এমন কর যা পণ্য ও পরিষেবায় লুকিয়ে থাকে এবং ভোক্তারা ক্রয়ের সময় পরিশোধ করে। যেমন:

কাস্টমস ডিউটি: এটি একটি পরোক্ষ কর যা জাতীয় সীমানা জুড়ে পণ্য আমদানি ও রপ্তানির উপর আরোপ করা হয়। পণ্যের ধরন এবং মূল্য এবং উৎপত্তি বা গন্তব্যের দেশের উপর নির্ভর করে শুল্কের হার পরিবর্তিত হয়। শুল্ক কাস্টমস অ্যাক্ট, ১৯৬২ দ্বারা পরিচালিত হয় এবং সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ইনডাইরেক্ট ট্যাক্সেস অ্যান্ড কাস্টমস (CBIC) দ্বারা পরিচালিত হয়। 

এক্সাইজ ডিউটি: এটি হল ভারতে উৎপাদিত পণ্যের উপর আরোপিত এক ধরনের কর। এটি কাস্টমস ডিউটি থেকে ভিন্ন, কারণ এটি শুধুমাত্র দেশীয়ভাবে উৎপাদিত পণ্যের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। কেন্দ্রীয় এক্সাইজ বিধি অনুযায়ী, নির্দিষ্ট পণ্যের উপর এ কর প্রদান বাধ্যতামূলক এবং কর পরিশোধ ছাড়া উৎপাদন স্থান থেকে তাদের সরানো নিষিদ্ধ। এটি কেন্দ্রীয় মূল্য সংযোজন কর নামেও এক্সাইজ ডিউটি পরিচিত।

পণ্য ও পরিষেবা কর (GST): এটি একটি পরোক্ষ কর যা আগের অনেক পরোক্ষ কর যেমন বিক্রয় কর, পরিষেবা কর, মূল্য সংযোজন কর, ইত্যাদি প্রতিস্থাপন করেছে। জিএসটি হল একটি ব্যাপক কর যা পণ্য ও পরিষেবার সরবরাহের উপর আরোপ করা হয়।  মান শৃঙ্খলের প্রতিটি পর্যায়ে। GST হল একটি গন্তব্য-ভিত্তিক কর, যার অর্থ হল যে রাজ্য যে পণ্য বা পরিষেবাগুলি ব্যবহার করে সেখানে কর সংগ্রহ করা হয়। GST আইন, ২০২৭ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় এবং GST কাউন্সিল দ্বারা পরিচালিত হয়, যা কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের প্রতিনিধিদের নিয়ে গঠিত। 

বিক্রয়কর (Sales Tax): বিক্রয় কর হলো পণ্য ও সেবা বিক্রির উপর আরোপিত এক ধরনের খরচ। এটি সাধারণত কেনা পণ্যের খুচরা মূল্যের একটি শতাংশ হিসাবে নির্ধারিত হয়। বিক্রয়কর বিক্রেতারা সংগ্রহ করে এবং সরকারকে জমা দেয়। 

পরিষেবা কর (Service Tax): পরিষেবা কর ১৫% হারে ধার্য করা হয় এবং এটি কোম্পানিগুলি দ্বারা প্রদত্ত পরিষেবাগুলিতে প্রযোজ্য। পৃথক পরিষেবা প্রদানকারীরা বিল পরিশোধের সময় কর প্রদান করে, অন্যদিকে কোম্পানিগুলি বিল পরিশোধের নির্বিশেষে, ইনভয়েস প্রদানের পরেই কর প্রদান করে। অস্পষ্টতা এড়াতে রেস্তোরাঁগুলি মোট বিলের ৪০% এর উপর পরিষেবা কর ধার্য করে। 

মূল্য সংযোজন কর (VAT): ভ্যালু অ্যাডেড ট্যাক্স (VAT) অথবা বাণিজ্যিক কর সরবরাহ শৃঙ্খলের সব ধাপে ধার্য করা হয়, শুধুমাত্র খাদ্য এবং প্রয়োজনীয় ওষুধের মতো শূন্য-রেটেড আইটেম বাদে। মূসক রাজ্য সরকারগুলি আরোপ করে, প্রতিটি রাজ্য নিজ নিজ রাজ্যের মধ্যে বিক্রি হওয়া পণ্যের উপর নিজস্ব করের হার নির্ধারণ করে।

করের গুরুত্ব (Importance of Taxes)

কর সরকারের জন্য অর্থ সংগ্রহের একটি প্রধান উপায়। এই অর্থ দিয়ে সরকার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করে, যার ফলে দেশের অর্থনীতির উন্নতি হয় এবং জনগণের জীবনযাত্রার মান উন্নত হয়। কর না থাকলে সরকারের কাছে পর্যাপ্ত অর্থ থাকবে না জনসাধারণের জন্য প্রয়োজনীয় পরিষেবাগুলি প্রদান করার জন্য।

আরও পড়ুন: Real Estate Investment: বাড়ি কেনাবেচা করলে সরকারকে দিতে হবে ট্যাক্স! এই নিয়ম মানলে দিতে হবে না ট্যাক্স।

কর দায়িত্ব (Tax Responsibility)

নাগরিকদের আইন অনুযায়ী কর প্রদান করা বাধ্যতামূলক। কর ফাঁকি দেওয়া একটি অপরাধ এবং এটির জন্য কঠোর শাস্তি হতে পারে। সরকারি কর দায়িত্ব পালন করা প্রতিটি নাগরিকের কর্তব্য। এটি দেশের উন্নয়নে অবদান রাখার এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য একটি উন্নত দেশ গড়ে তোলার একটি উপায়।

আরও পড়ুন: Income Tax – বিয়ের কেনাকাটা করছেন? সাবধান! আপনার উপর নজর রাখছে আয় কর দপ্তর।

কর (Tax) সম্পর্কে আরও তথ্য

কর সম্পর্কে আরও তথ্য জানতে চাইলে আপনি আপনার এলাকার কর অফিসে যোগাযোগ করতে পারেন। এছাড়াও সরকারের কর বিভাগের ওয়েবসাইটেও আপনি কর সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য পেতে পারেন।

আরও পড়ুন: এই ভাবে আপনার স্ত্রীর সাহায্যে ৭ লক্ষ টাকা পর্যন্ত কর বাঁচাতে পারবেন, জেনেনিন বিস্তারিত তথ্য।

উপসংহার

কর একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যা আমাদের সকলেরই বুঝতে হবে। এটি আমাদের দেশের উন্নয়নে অবদান রাখার একটি উপায়। সুতরাং, আমাদের কর দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন হওয়া এবং সরকারকে কর প্রদান করা উচিত।

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us

1 thought on “কর (Tax) কি? এবং কত প্রকার? জেনেনিন বিস্তারিত তথ্য | Types of Taxes in Bengali”

Leave a Comment