শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

মিউচুয়াল ফান্ড এবং শেয়ার বাজার কোনটিতে বিনিয়োগে বেশি লাভ | Mutual Fund Vs Share Market in BENGALI

Photo of author

By Anjan Mahata

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Mutual Fund Vs Share Market in Bengali: মিউচুয়াল ফান্ড এবং শেয়ার বাজার মানুষের কাছে সবচেয়ে জনপ্রিয় উপায় টাকা বিনিয়োগ করার । টাকা বিনিয়োগের প্রসঙ্গ উঠলে সবার মনে প্রশ্ন জাগে যে মিউচুয়াল ফান্ড নাকি শেয়ার বাজার কোনটিতে বিনিয়োগে বেশি লাভ এবং ঝুঁকি কম । এই আর্টিকেলে শেয়ার বাজার ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে নিপুন ভাবে পার্থক্য প্রস্তুত করা হয়েছে যা পাঠকদের সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য সর্বোত্তম নির্ভুল তথ্য প্রদান করবে ।

)মিউচুয়াল ফান্ড (mutual fund):-

আপনি যদি আপনার অর্থ দ্রুত বৃদ্ধি করতে চান তবে মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করা করা একটি সর্বোত্তম উপায়।মিউচুয়াল ফান্ডে আপনি SIPO করতে পারেন যেখানে আপনাকে প্রতি মাসে একটি নির্দিষ্ট স্বল্প পরিমাণ অর্থ জমা করতে হবে এবং কয়েক বছর পরে আপনি সেই অর্থের উপর চক্রবৃদ্ধি হার সুদে রিটার্ন পাবেন।

মিউচুয়াল ফান্ড সর্ম্পকে বিস্তারিত জানতে:- click here

) শেয়ার বাজার (share market)

শেয়ার বাজারে শেয়ার বা স্টক কেনাবেচা করা হয় । যেখানে কোনো কোম্পানি স্টক এক্সচেঞ্জ (Stock exchange) এর মাধ্যমে শেয়ার কেনা বেচা করে থাকেন। আপনি যদি কোনো কোম্পানির শেয়ার ক্রয় করেন তবে আপনি ওই কোম্পানির অংশিদার বা shareholder হয়ে যাবেন ।

চলো একটি উদাহরণ এর মাধ্যমে সমস্ত বিষয়টা বুঝে নেওয়া যাক :- ধরুন কোনো ABC কোম্পানির ১০০ টি শেয়ার আছে তবে আপনি যদি ওই কোম্পানির থেকে একটি শেয়ার ক্রয় করেন তবে আপনি ওই কোম্পানির ১০০ ভাগের একভাগ অংশীদার বা ভাগিদার হয়ে যাবেন ।

শেয়ার বাজার সম্পর্কে সম্পূর্ণ জানতে CLICK HERE

মিউচুয়াল ফান্ড V/S শেয়ার বাজার(mutual fund v/s share market in bengali):-

বিষয়মিউচুয়াল ফান্ডশেয়ার বাজার
বিনিয়োগের
প্রকার
অপ্রতক্ষ্য বিনিয়োগপ্রতক্ষ্য বিনিয়োগ
পরিচালনামিউচুয়াল ফান্ডে
বিনিয়োগ একজন
ফান্ড
ম্যানেজার
দারা
পরিচালিত
হয়
বিনিয়োগকারী
নিজেই
পরিচালনা
করেন
SIP বিনিয়োগমিউচুয়াল ফান্ডে
আপনি
একটি নির্দিষ্ট
SIP তে
বিনিয়োগ করতে পারেন
কিন্তু
শেয়ার এ
তা পারেন না
কারণ
শেয়ার এর
মুল্য ওঠানামা
করতে থাকে
ফলে আপনার বিনিয়োগের
পরিমাণ
পরিবর্তনশীল
অর্থের পরিমাণমিউচুয়াল ফান্ড
গুলি আপনাকে
কোম্পানির
একটি
অংশ কেনার
সুযোগ দেয়
কারণ ফান্ড
হাউস সমস্ত বিনিয়োগকারী
অর্থকে
বিনিয়োগ করার জন্য
পুঞ্জীভূত করে।
ফলে মিউচুয়াল
ফান্ডে প্রচুর
অর্থের প্রয়োজন
নেই

শেয়ার বাজারে
বিনিয়োগ করার
সময় অনেক
সময় আপনার
প্রচুর অর্থের
প্রয়োজন।
কারণ বাজার
বৃদ্ধির জন্য
শেয়ারের দাম
বেড়ে যায়।

রিটার্নগড় রিটার্ন
৮ শতাংশ
লং-টার্ম রিটার্ন
১৪ থেকে ১৬
শতাংশ পর্যন্ত
হতে পারে
ঝুঁকির পরিমাণঝুঁকির পরিমাণ
কম
ঝুঁকির পরিমাণ
বেশি
রিটার্ন সময়দীর্ঘ সময়ে ভালো
রিটার্ন দিতে পারে ;
সাধারণত ৫ বছর পর
দ্রুত রিটার্ন
দিতে পারে
Fees বা
র্চাজ
আপনাকে ফান্ড
ম্যনেজম্যন্ট
র্চাজ , back and
load , early redmpson
ইত্যাদির অর্থ
প্রদান করতে হবে
আপনাকে
ব্রোকারেজ ফি
এবং অন্যান্য লেনদেন ফি

দিতে হবে
মালিকানামিউচুয়াল ফান্ডে আপনি ফান্ডের
সাথে সম্পদেও
বিনিয়োগ করতে পারেন
শেয়ার বাজারে
আপনি শুধুমাত্র
শেয়ারে বিনিয়োগ
করতে পারেন
এবং আপনি
সংশ্লিষ্ট
কোম্পানীর
অংশীদার
মালিক হতে
পারেন
স্বাধিনতামিউচুয়াল ফান্ড
একটি
পেশাদারী
মতামত প্রদান
করে
শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ প্রক্রিয়া স্বধীন
বিনিয়োগকারীর
প্রকার
মিউচুয়াল ফান্ডে
যে কোনো
ব্যক্তিই
বিনিয়োগ করতে পারেন
শেয়ার বাজার
বড়ো ব্যবসায়ী
ও নেতাদের
উপযোগী।
.

উপসংহার

প্রতিটি বিনিয়োগকারী ভিন্ন তাঁদের মতামত ভিন্ন এবং তাদের বিনিয়োগের ধরনও ভিন্ন । এটি বিনিয়োগকারী এর উপর নির্ভর করে যে সে কি সুবিধা পেতে চান , তাঁর উদ্দেশ্য , বিনিয়োগের পরিমাণ, বিনিয়োগের সময়, এবং বিনিয়োগকারী কতটা ঝুঁকি নিতে ইচ্ছুক তার উপর।

এই আর্টিকেলের মধ্যে শুধু মাত্র মিউচুয়াল ফান্ড এবং শেয়ার বাজারের মধ্যে তুলনা করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে আপনার কোন বক্তব্য বা প্রশ্ন থাকলে নিচে কমেন্ট করে জানান ।

শেয়ার বাজার কী?

শেয়ার বাজারে শেয়ার কেনাবেচা করা হয় আপনি কোন কোম্পানির শেয়ার কিনে সেই কোম্পানির অংশীদার হতে পারেন এবং আপনি ওই কোম্পানি থেকে যত শতাংশ শেয়ার কিনেছেন সেই কোম্পানি যদি লাভ করে কবে আপনি সেই শতাংশ অর্থ ফিরে পাবেন ।

শেয়ার বাজারে বিনিয়োগের সুবিধা

শেয়ার বাজারে বিনিয়োগের সুবিধামাসে ৫০০ টাকা জমিয়ে ১০ কোটি টাকা রিটার্নশেয়ার বাজারে বিনিয়োগ দীর্ঘমেয়াদী বৃদ্ধির মাধ্যমে আয়ের সুযোগ প্রদান করতে পারে। যাইহোক, এটা মনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ যে শেয়ার বাজারে বিনিয়োগের সাথে ঝুঁকিও আসে এবং আপনার গবেষণা করা এবং সাবধানে বিনিয়োগ করা গুরুত্বপূর্ণ।

বিনিয়োগ করার আগে শেয়ার বাজার সম্পর্কে গবেষণা কীভাবে করবেন ?

শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করার আগে শেয়ারবাজার সম্পর্কে গবেষণা করার বিভিন্ন উপায়ে রয়েে প্রথমে আপনি যে কোম্পানি শেয়ার কিনতে চান সেই কোম্পানির সম্পর্কে সংবাদপত্র পড়ুন। ।। দ্বিতীয়ত ওই কোম্পানির প্রতিযোগী গুলির সংবাদ বা খবরা-খবর রাখুন । এবং তৃতীয় তো কোন অভিজ্ঞ ব্যক্তিত্বের কাছে পরামর্শ নিন।

মিউচুয়াল ফান্ড কি?

আপনি যদি আপনার অর্থ দ্রুত বৃদ্ধি করতে চান তবে মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিযোগ করা একটি সর্বোত্তমAdd Imageউপায়।

মিউচুয়াল ফান্ড না শেয়ার বাজার কোনটি ভালো

মিউচুয়াল ফান্ডের তুলনায় শেয়ার বাজারে বিনিয়োগে লাভের পরিমাণ বেশি কিন্তু মিউচুয়াল ফাজে ঝুঁকির পরিমাণ শেয়ার বাজারের তুলনায় কম।