শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ড কি? সুবিধা ও অসুবিধা,সেরা লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ড| large cap mutual fund in bengali

Photo of author

By Anjan Mahata

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Large Cap Mutual Fund In Bengali: মিউচুয়াল ফান্ডে ঝুঁকির সম্ভাবনা কম থাকে শেয়ার বাজারের তুলনায়। তাই আপনি আপনার অর্থ যদি বৃদ্ধি করতে চান তাহলে মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করা একটি সর্বোত্তম উপায়। মিউচুয়াল ফান্ডে আপনি SIP বা LUMPSUM করতে পারেন। মিউচুয়াল ফান্ডের অনেক প্রকারভেদ রয়েছে যার মধ্যে একটি হল লার্জ মিউচুয়াল ফান্ড। আজকে এই আর্টিকেলের মধ্যে জানতে পারবেন লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ড কি? লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডের সুবিধা ও অসুবিধা এবং কারা লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করবেন? আরোও জানতে পারবেন ভারতের সেরা লার্জ ক্যপ মিউচুয়াল ফান্ড কোনগুলি।

লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ড কী? (Large Cap Mutual Fund In Bengali)

ভারতের রেগুলারিটি বোর্ড SEBI (Securities and Exchange Board of India) স্মল ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ড সম্পর্কে একটি ধারণা প্রকাশ করেন। মার্কেট ক্যাপিটালাইজেশন অনুযায়ী ১ থেকে ১০০তম যে কোম্পানিগুলি রয়েছে সেগুলি হল লার্জ ক্যাপ কোম্পানি।

লার্জ ক্যাপ কোম্পানিমার্কেট ক্যাপিটালাইজেশন অনুযায়ী ১ থেকে ১০০তম যে কোম্পানিগুলি রয়েছে সেগুলি হল লার্জ ক্যাপ কোম্পানি।
মিড ক্যাপ কোম্পানি মার্কেট ক্যাপিটালাইজেশন অনুযায়ী ১০১ থেকে ২৫০তম যে কোম্পানিগুলি রয়েছে সেগুলি হল মিড ক্যাপ কোম্পানি।
স্মল ক্যাপ কোম্পানি মার্কেট ক্যাপিটালাইজেশন অনুযায়ী ২৫১ এর পর থেকে যে কোম্পানিগুলি রয়েছে সেগুলি স্মল হল ক্যাপ কোম্পানি।

লার্জ ক্যাপ কোম্পানিগুলোতে অর্থাৎ তুলনামূলক বড় কোম্পানিগুলিতে যে মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করছেন সেটি হল লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ড।

কারা কারা লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করবেন

লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডে কারা বিনিয়োগ করলে বেশি লাভবান হবেন-

  • যারা ফিক্সড ডিপোজিটের থেকে বেশি রিটার্ন চান তারা এই মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করতে পারেন।
  • আপনি যদি শর্ট টার্ম এর জন্য ইনভেস্টমেন্ট করার কথা ভাবেন তাহলে লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ না করাই ভালো। কারণ সেক্ষেত্রে আপনি বেশি লাভবান হবেন না।
  • লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডে তাঁরায় বিনিয়োগ করলে বেশি লাভবান হবেন যারা লং টার্মের জন্য বিনিয়োগ করতে চান। কারণ লার্জ ক্যাপ কোম্পানিগুলোর Growth খুব Slow ।
  • সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল যারা বাজার সম্পর্কে একটু আধটু খবরাখবর রাখেন তারা লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডে ইনভেস্ট করতে পারেন।
  • যদি আপনি বাজার সম্পর্কে কোনো খবরা-খবর না রাখেন এবং আপনি ভুল সময় টাকা বিনিয়োগ করেন তাহলে আপনার বড় অংকের লস হতে পারে।
  • লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডে সবাই বিনিয়োগ করতে পারেন, কিন্তু অল্প বয়সী যারা বিনিয়োগ করতে ইচ্ছুক তারা লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডে লং টার্মের জন্য ইনভেস্ট করলে বেশি লাভবান হবেন।

লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডের সুবিধা (Large Cap Mutual Fund Advantage)

লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডের সুবিধা গুলি হল-

  • কোনো বড় কোম্পানি একদিনে তৈরি হয় না, সেই কোম্পানি দীর্ঘ সময় ধরে একটা বিরাট সাম্রাজ্য গঠন করে। এইসব কোম্পানিগুলির সবচেয়ে ভালো দিক হল এইসব কোম্পানিগুলির ব্যবসা সহজে ডুবে না।
  • লার্জ ক্যাপ কোম্পানিগুলির ব্যবসা ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে এটা ইতিহাস সাক্ষী রয়েছে।
  • লার্জ ক্যাপ কোম্পানিগুলির ব্যবসা বাড়ার সাথে সাথে আপনার ইনভেস্ট করা টাকার ভ্যালু ক্রমশ বাড়তে থাকবে।
  • লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডে ইনভেস্ট করলে আপনার লসের সম্ভাবনা কম থাকে।
  • লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডে আপনি যদি লং টার্মের জন্য ইনভেস্টমেন্ট করেন তাহলে একটি ভালো পরিমানের রিটার্ন পাবেন।

লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডের অসুবিধা (Large Cap Mutual Fund Disadvantage)

লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডের যেরকম সুবিধা রয়েছে সেরকম কিছু অসুবিধা রয়েছে-

  • লার্জ ক্যাপ কম্পানিগুলির Growth খুব কম হয়।
  • লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ড স্মল ক্যাপ এবং মিড ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডের তুলনায় কম রিটার্ন দেয়।
  • লার্জ ক্যাপ কোম্পানিগুলির ব্যবসা ১০ থেকে ২০ শতাংশ বৃদ্ধি করতে কয়েক হাজার কোটি টাকার ব্যবসা বৃদ্ধি করতে হয়। সেই জন্য লার্জ ক্যাপ কোম্পানি অর্থাৎ লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডে রিটার্ন যেরকম সহজে কমে যায় না সেরকম দ্রুতবেগে বেড়েও যায় না।
  • স্মল ক্যাপ এবং মিড ক্যাপ কোম্পানিগুলি একটু ভালো কাজ করলে টাকা দ্বিগুণ তিনগুণ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে কিন্তু লার্জ ক্যাপ কোম্পানিগুলির ক্ষেত্রে সেরকম হওয়া সম্ভব নেই। কারণ তারা একটা বিরাট সাম্রাজ্য গঠন করে রয়েছে।

কতদিনের জন্য ইনভেস্ট করবেন

শেয়ারবাজারে একটি কথা প্রচলিত আছে-

” যদি তুমি শেয়ার বাজারে কোন শেয়ার ১০ বছরের জন্য নেওয়ার চিন্তাভাবনা না করো, তাহলে সেটা তুমি ১০ মিনিটের জন্যও নিও না।”

উপরোক্ত উক্তিটির বক্তা হলেন পৃথিবীর সবচেয়ে বিখ্যাত ইনভেস্টার ‘Warren Buffett’ ।

যে কোন ইনভেস্টমেন্ট লং টার্মের জন্য করা উচিত। লার্জ ক্যাপ ফান্ডে ইনভেস্টমেন্ট এর ক্ষেত্রে অবশ্যই লং টার্মের জন্য বিনিয়োগ করা উচিত। লার্জ ক্যাপ কোম্পানিগুলোতে ইনভেস্ট করলে আপনার টাকা কয়েকদিনের মধ্যে বৃদ্ধি হবে না কম্পাউন্ডিং এর ক্ষেত্রে বেশ সময় লাগবে। লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ডে সর্বনিম্ন ১০ বছরের জন্য ইনভেস্ট করা প্রয়োজন।

আরও পড়ুন>> ২০২৩ সালে কোথায় বিনিয়োগ করা উচিত? মিউচুয়াল ফান্ড, স্টক না গোল্ড

কয়েকটি সেরা লার্জ ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ড (Best Large Cap Mutual Fund)

সেরা কতগুলো লার্জ ক্যাপ কোম্পানি যে কোম্পানিগুলি বিগত বছর গুলিতে ভালো পারফরম্যান্স করেছে সেগুলো হল-

Axis Bluechip Fund

সর্বনিম্ন বিনিয়োগের পরিমাণ₹ ৫০০ টাকা
AUM₹ ৩৩,০৪৯.৭৭ কোটি টাকা
1 year Return১৬.১৬ %

Mirae Asset Large Cap Fund

সর্বনিম্ন বিনিয়োগের পরিমাণ₹ ৫,০০০ টাকা
AUM₹ ৩৪,৬৪০ কোটি টাকা
1 year Return১৮.৬ %

SBI Bluechip Fund

সর্বনিম্ন বিনিয়োগের পরিমাণ₹ ৫,০০০ টাকা
AUM₹ ৩৬,৮৭৬ কোটি টাকা
1 year Return২৫.০%

ICICI Prudential Bluechip Fund

সর্বনিম্ন বিনিয়োগের পরিমাণ₹ ১০০ টাকা
AUM₹ ৩৭,০১৬ কোটি টাকা
1 year Return২১.৯%

Nippon India Large Cap Fund

সর্বনিম্ন বিনিয়োগের পরিমাণ₹ ১০০ টাকা
AUM₹ ১৪,১৭১ কোটি টাকা
1 year Return৩১.৭%

SBI Bluechip Fund

সর্বনিম্ন বিনিয়োগের পরিমাণ₹ ৫,০০০ টাকা
AUM₹ ৩৬,৮৭৬ কোটি টাকা
1 year Return২৫.০%

Canara Robeco Bluechip Equity Fund

সর্বনিম্ন বিনিয়োগের পরিমাণ₹ ৫,০০০ টাকা
AUM₹ ৯,৬০০ কোটি টাকা
1 year Return২২.২%

আরও পড়ুন >> স্মল ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ড কী? সুবিধা ও অসুবিধা, সেরা স্মল ক্যাপ মিউচুয়াল ফান্ড

~Disclaimer

সমস্ত বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সুবিধা এবং অসুবিধা রয়েছে। সমস্ত বিনিয়োগ ঝুঁকিপূর্ণ। কোনো বিনিয়োগ করার পূর্বে অবশ্যই বিনিয়োগের সুবিধা-অসুবিধা এবং ঝুঁকি সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে তারপর বিনিয়োগ করবেন।

আরও পড়ুন>> মিউচুয়াল ফান্ডে কিভাবে বিনিয়োগ করবেন?