শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স FD ক্যালকুলেটর

Buisness Idea: ওষুধের দোকান খোলে আয় করুন, কেন্দ্রীয় সরকার করবে সাহায্য

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Business Idea: আপনি কি নতুন ব্যবসার পরিকল্পনা করছেন? তাহলে আপনার জন্য রয়েছে একটি দুর্দান্ত সুযোগ। কেন্দ্র সরকার ব্যবসা শুরু করার দারুন সুযোগ দিচ্ছে। যেখানে খুব কম টাকা ইনভেস্ট করতে আপনি ব্যবসাটি শুরু করতে পারবেন। শুধু তাই নয়, এই ব্যবসার চাহিদা সব সময় থাকবে। ফলে মাস শেষে ভালো টাকা উপার্জন করা যাবে। চলুন তাহলে দেরি না করে এই দুর্দান্ত ব্যবসার আইডিয়া সম্পর্কে জেনে নিন-

প্রধানমন্ত্রী ভারতীয় জন ঔষধি কেন্দ্র (Pradhan Mantri Bharatiya Aushadhi Kendra)

আজ ‘প্রধানমন্ত্রী ভারতীয় জন ঔষধি কেন্দ্র’ সম্পর্কে কথা বলবো। করোনার পরবর্তী সময় থেকে দেশে ওষুদের চাহিদা আরও বেড়েছে। চাহিদার সঙ্গে তাল মিলিয়ে বেড়েছে দোকান। সাধারণ মানুষ যাতে জেনেরিক ওষুধ পায়, সে জন্য ‘প্রধানমন্ত্রী ভারতীয় জন ঔষধি কেন্দ্র’ (Pradhan Mantri Bharatiya Aushadhi Kendra) চালু করা হচ্ছে। এই কেন্দ্র থেকে মানুষ কম দামে ওষুধ কিনে থাকে। কেন্দ্র এই কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়ানোর লক্ষ্যমাত্রা স্থির করেছে। চলতি মার্চে দেশ জুড়ে ১০,০০০ জন ঔষধ কেন্দ্র খোলার লক্ষ্য নেওয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী ভারতীয় জন ঔষধি কেন্দ্র’ কারা খুলতে পারবে?

আপনিও যদি ভারতীয় জন ঔষধি কেন্দ্র খোলার কথা ভেবে থাকেন, তাহলে কয়েকটি বিষয় আপনাকে আগে জানতে হবে। যেমন ধরুন যে কেউ এই কেন্দ্র খুলতে পারবে না। এই কেন্দ্রের ফ্রাঞ্জাইজি ফার্মাসিস্ট/ডাক্তার কিংবা ট্রাস্ট/এনজিও/বেসরকারি হাসপাতাল কিংবা রাজ্য সরকার মনোনীত সংস্থা-ই খুলতে পারবে। অর্থাৎ আপনি যদি ব্যাক্তিগত ভাবে এই জন ঔষধি কেন্দ্র খুলতে চান, তাহলে আপনাকে ডি ফার্মা বা বি ফার্মা ডিগ্রি সম্পন্ন করতে হবে।

আবেদন করতে কত টাকা প্রয়োজন?

প্রধানমন্ত্রী জন ঔষধি কেন্দ্র (Pradhan Mantri Bharatiya Aushadhi Kendra) খোলার জন্য ৫,০০০ টাকা ফি জমা করতে হবে। এই কেন্দ্র খোলার জন্য একটি নির্দিষ্ট পরিমান জায়গা থাকতে হবে। এর ফ্রাঞ্জাইজি নিতে গেলে ১২০ বর্গফুট জায়গা প্রয়োজন। বিশেষ বিষয় হলো এই ফ্রাঞ্জাইজি খুললে সরকারের পক্ষ থেকে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত সহায়তা করা হবে। তবে এর জন্য আপনার SC/ST সার্টিফিকেট থাকতে হবে। এছাড়া প্রতি মাসে ১৫,০০০ টাকা পর্যন্ত ওষুধ কেনার মিলবে ১৫ শতাংশ ছাড়।

আরও পড়ুন: Small Business Idea – হোলি উৎসবে হবে দারুন লাভ! মাত্র ৫০০০ টাকা দিয়ে শুরু করুন এই ব্যাবসা।

কীভাবে আবেদন করবেন?

আপনি যদি জন ঔষধি কেন্দ্র খুলতে চান, তাহলে আপনাকে জন ঔষধি কেন্দ্রের নামে প্রথমে ওষুধ বিক্রির লাইসেন্স নিতে হবে। এর জন্য আপনাকে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://janaushadhi.gov.in/ থেকে একটি ফর্ম সংগ্রহ করতে হবে। এরপর সেই ফর্ম পূরণ করে ফার্মা পাবলিক সেক্টর আন্ডারটেকিং ব্যুরো অফিসে গিয়ে জমা দিতে হবে। এখান থেকে মঞ্জুর মিললে তবেই খুলতে পারবেন জন ঔষধি কেন্দ্র।

আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় নথি

  • আধার কার্ড
  • ফার্মাসিস্ট রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট
  • প্যান কার্ড
  • মোবাইল নম্বর
  • স্থায়ী বাসিন্দা সার্টিফিকেট
  • কাস্ট সার্টিফিকেট

আরও পড়ুন: Business Idea – কম পুঁজির এই ব্যাবসায় নেই প্রতিযোগী, ব্যাবসার শুরু করলেই লাখ লাখ টাকা আয়।

প্রতি মাসে কত টাকা হবে?

এই ওষুদের দোকান থেকে ওষুধ বিক্রির কোনো ঝামেলা বা চিন্তা নেই। এখানে ওষুদের দামের উপর ৫০ থেকে ৯০ শতাংশ ছাড় পাওয়া যায়। আর এখানে ওষুধ বিক্রির উপর ২০ শতাংশ কমিশন পাওয়া যাবে। এছাড়া রয়েছে আরও এক্সট্রা আয়। সুতরাং আপনি এই ওষুদের দোকান খুলে নিশ্চিন্তে প্রতি মাসে ভালো টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

আরও পড়ুন: Business Idea – কম খরচে এইভাবে শুরু করুন প্যাকিং ব্যবসা, প্রতি মাসে প্রচুর আয় করবেন আপনিও।

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us