শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

500 rupees note: ২০০০ টাকার নোটের পর এবার ৫০০ টাকার নোট নিয়ে rbiএর বিরাট সিদ্ধান্ত

Photo of author

By Anjan Mahata

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

500 rupees note: ৮ই জুন বৃহস্পতিবার ৫০০ টাকার নোট, ১০০০ টাকার নোট এবং ২০০০ টাকার নোট নিয়ে বিরাট ঘোষণা করেন ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংক এর গভর্নর শক্তিকান্ত দাস। গত মাসেই ২০০০ টাকার নোট বাজার থেকে তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন RBI , এরপর থেকে বাজারে ২ হাজার টাকার নোট আর বেশি পরিমাণে দেখা যায়নি। RBI এর ২০০০ টাকার নোট বাজার থেকে তুলে নেওয়ার পরিকল্পনা অনেক আগের তাই গত চার বছর ধরে নতুন ২০০০ টাকার নোট ছাপা হয়নি। আপনার কাছে যদি ২০০০ টাকার নোট থেকে থাকে তাহলে ২৩শে মে থেকে ৩০শে আগস্টের মধ্যে সেই টাকা আপনি ব্যাংকে গিয়ে বদল করেন নিতে পারেন। মনে করা যায়, যে বাজার থেকে ২ হাজার টাকার নোট তুলে নেওয়ার মূল কারণ হলো যে সমস্ত স্থানে দুর্নীতি ঘটেছে সেই সমস্ত স্থানে 2000 টাকার নোট পাওয়া গিয়েছে এবং অন্যান্য নোটের তুলনায় ২০০০ টাকার নোটের বেশি জাল নোট বাজারে ঘোরাফেরা করছিল। ২০০০ টাকার নোট বাতিলের পর একটি নতুন খবর শোনা যাচ্ছে যে ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংক ৫০০ টাকার নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এবং আবারও ১০০০ টাকার নোটকে বাজারে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, এ বিষয়ে ধারণা স্পষ্ট করলেন RBI গভর্নর শক্তিকান্ত দাস।

৫০০ টাকার নোট নিয়ে সম্পূর্ণ তথ্য

১৯৮৭ সালে প্রথম ৫০০ টাকার নোট চালু করা হয়। ৮ ই নভেম্বর ২০১৬ সালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দুর্নীতি বন্ধ করার জন্য এবং বাজারে যে অতিরিক্ত পরিমাণে জাল নোট ছড়িয়ে পড়েছিল তা রুখতে পুরনো ৫০০ টাকার নোট বাতিল করা হয়। ১০ই নভেম্বর ২০১৬ সালে মহাত্মা গান্ধী সিরিজের নতুন ৫০০ টাকার নোট প্রচলন করা হয়।

500 rupees note photo
  • ৫০০ টাকার নোটের প্রস্থ ১৫০ মিলিমিটার এবং উচ্চতা ৬০ মিলিমিটার।
  • ১০ই নভেম্বর ২০১৬ সালে ৫০০ টাকার নোট প্রচলন করা হয়।
  • নোটটির একটি পাশে লালকেল্লার ডিজাইন করা আছে।
  • বর্তমান দিনে ৫০০ টাকার মূল্য ৬.০৬ ডলারের সমান।
  • ২০১৬ সালে প্রচলিত নতুন ৫০০ টাকার নোটের নিরাপত্তার উপর প্রচুর গুরুত্ব দেওয়া হয়।

৫০০ টাকার নোট বাতিল সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য

২০০০ টাকার নোট বাতিলের পর থেকে একটি চাঞ্চল্যকর খবর শোনা যাচ্ছিল যে ২০০০ টাকার পর এবার ৫০০ টাকার নোটও বাতিল করা হবে। ২০০০ টাকার নোট বাতিলের পর ভারতীয় বাজারে সব থেকে বড় নোট হল ৫০০ টাকা। ২০০০ টাকার নোট বাতিল ঘোষণার পর বেড়েছিল ৫০০ টাকার জাল নোটের সংখ্যা। ৮ই জুন বৃহস্পতিবার মনিটারি কমিটি ঘোষণার সময় RBI এর গভর্নর শক্তিকান্ত দাসের কাছে ৫০০ টাকার নোট বাতিল সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানার জন্য প্রশ্ন করা হয়। RBI এর গভর্নর শক্তিকান্ত দাস স্পষ্ট করে দেন যে ৫০০ টাকার নোট বাতিল করা নিয়ে বর্তমানে তাদের কোনো চিন্তাভাবনা নেই।

আরও পড়ুন>> ২০০০ টাকার নোট বাতিল? ২ হাজার টাকার নোট নিয়ে বড়ো সিদ্ধান্ত RBI এর

১০০০ টাকার নোটের প্রচলন

২০০০ টাকার নোট বাতিলের পর এটাও শোনা যাচ্ছিল যে আবার ১০০০ টাকার নোট বাজারে ফিরতে চলেছে। RBI এর গভর্নর শক্তিকান্ত দাস সাংবাদিকদের জানিয়েছেন নতুন করে ১০০০ টাকার নোট বাজারে আনার কোনো ভাবনা নেই RBI এর।

২০০০ টাকার নোট নিয়ে ঘোষণা

গত মাসে ২০০০ টাকার নোট বাতিল সম্পর্কে জানিয়েছেন RBI। সেই ঘোষণার সময় RBI মনে মনে করেন ৩১শে সেপ্টেম্বরের আগে প্রায় সমস্ত ২ হাজার টাকার নোট বাজার থেকে উঠে যাবে। RBIএর গভর্নর শক্তিকান্ত দাস সাংবাদিকদের জানিয়েছেন বাজারে থাকা মোট ২০০০ টাকা নোটের মধ্য ৫০ শতাংশ ব্যাংকে ফিরে এসেছে। RBI এর তরফ থেকে এও জানানো হয় যে গত মার্চ মাসের ৩১ তারিখ পর্যন্ত বাজারে মোট ৩.৬২ লক্ষ কোটি টাকার ২০০০ এর নোট ছিল। RBI এর গভর্নর শক্তিকান্ত দাস সাংবাদিকদের জানিয়েছেন ১.৮২ লক্ষ কোটি টাকার ২০০০ এর নোট ইতিমধ্যে তাদের কাছে ফিরে এসেছে।

Desclaimer

বাজার থেকে ২০০০ টাকার নোট তুলে নেওয়ার ঘোষণার পর থেকে ছড়িয়েছে নানা গুজব। কিছুদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচুর ভাইরাল হচ্ছিল কতগুলি নোট এবং কয়েনের ছবি , শোনা যাচ্ছিল ২০০০ টাকার নোট বাতিলের পর ওই নোটগুলি এবং কয়েনগুলি ভারতের বাজারে আসতে চলেছে। এরপর ৫০০ টাকার নোট বাতিল সম্পর্কে এবং এক হাজার টাকার নোট বাজারে আসার সম্পর্কে আবারও নতুন করে গুজব শুরু হয়। তাই RBI এর নির্দেশ এসব গুজবে কান দেবেন না। RBI জানান কোনো নোট বা কয়েন যদি বাতিল করার থাকে তা অফিসিয়াল ভাবে জানানো হবে এবং কোন নোট যদি বাজারে আসে তাহলে সেটাও অফিসিয়াল ভাবে জানানো হবে।

আরও পড়ুন>> নতুন ৭৫ টাকার মুদ্রা প্রকাশ! জেনেনিন কোথায় পাবেন এই মুদ্রা

আরও পড়ুন>> ২০২৩ সালের সেরা স্বাস্থ্য বীমা পলিসি। অবশ্যই জেনে থাকা দরকার

Leave a Comment