শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

কেন্দ্র সরকারের এই বন্ডে টাকা রাখলে পাবেন ৮.৫ শতাংশ সুদ, কয়েকবছরেই হবে টাকা ডবল।

Photo of author

By Anjan Mahata

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

টাকা টাকা বাড়ায় কথাটা শুনেছেন নিশ্চই। এটা বাস্তবেও হয়। এর জন্য আপনাকে টাকাকে কাজে লাগাতে হবে। সেটা ব্যবসাতে বিনিয়োগ করে হোক কিংবা যে কোনো স্কিমে। এ দেশে ফিক্সড ডিপোজিট সহ রেকারিং ডিপোজিট, পিপিএফ ইত্যাদি স্কিম রয়েছে যেখানে মানুষ বিনিয়োগ করে ভালো টাকা রিটার্ন পেয়ে থাকেন। তবে এগুলো ছাড়াও বিনিয়োগের আরো একটি দুর্দান্ত বিকল্প রয়েছে, যার নাম আরবিআই বন্ড। এখানে ফিক্সড ডিপোজিটের থেকে বেশি সুদ পাওয়া যায়। কী এই আরবিআই বন্ড? কীভাবে এখানে বিনিয়োগ করবেন? সেই সমস্ত বিষয়টা আজকের প্রতিবেদন থেকে আপনাদের জানাবো।

আরবিআই বন্ড কী?

আরবিআই বন্ড বিনিয়োগের একটি উল্লেখযোগ্য মাধ্যম। এটি কেন্দ্র সরকারের একটি সেভিংস বন্ড। যাকে ফ্লোটিং রেট সেভিংস বন্ডও বলা হয়। আপনি যদি টাকা বাড়ানোর জন্য একটি নিরাপদ বিনিয়োগের বিকল্প খোঁজেন তাহলে এটি আপনার জন্য এটি বেশ ভালো হবে। আরবিআই বন্ডে বিনিয়োগ করলে একদিকে যেমন টাকা নিরাপদ থাকবে, তেমনই এখানে এফডি-র থেকে বেশি সুদের হার মিলবে।

কারা আইবিআই বন্ড করতে পারবে?

কেন্দ্রীয় সরকারের সেভিংস বন্ডে ভারতের যে কোনো নাগরিক বিনিয়োগ করতে পারে। এখানে আপনি আপনার সন্তানের নামেও বন্ড করতে পারেন। এছাড়া যৌথ ভাবেও আরবিআই বন্ডে বিনিয়োগ করা যায়।

আইবিআই বন্ডে বর্তমানে কত সুদ পাওয়া যাচ্ছে?

আরবিআই বন্ড ফ্লোটিং রেট সেভিংস বন্ড হওয়ার কারণে পুরো মেয়াদ জুড়ে একই সুদের হার পাওয়া যায় না। সময়ে সময়ে সুদের হার পরিবর্তিত হয় এবং বছরে দুই বার অর্থাৎ ছয় মাস অন্তর অন্তর সুদের হার পরিবর্তিত হয়। এই সুদের হার নির্ধারণ করে ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট। NSC তে যে সুদ পাওয়া যায়, তার থেকে আরবিআই বন্ডে ৩৫ বেসিস পয়েন্ট সুদ বেশি পাওয়া যায়। গত জুলাই থেকে জানুয়ারি অর্ধ বর্ষে NSC ৭.৭ শতাংশ হারে সুদ দিচ্ছে। যেখানে আরবিআই বন্ডে সুদের হার পাওয়া যাচ্ছে ৮.৫ শতাংশ।

আরোও পড়ুন » Post Office Scheme: পোস্ট অফিসের এই সুপারহিট স্কিম এখন দিচ্ছে FD-র চেয়ে বেশি সুদ, এই স্কিম সম্পর্কে অবশ্যই জেনে থাকা দরকার

আরবিআই বন্ডে মেয়াদ কত দিন?

নূন্যতম ১০০০ টাকা দিয়ে আরবিআই বন্ড কেনা যায়। এখানে বিনিয়োগের কোনো সর্বোচ্চ সীমা নেই। ১০০০ টাকার গুনে বিনিয়োগ করতে পারবেন। আরবিআই বন্ডের মেয়াদ ৭ বছর। তবে প্রবীণ নাগরিকরা মেয়াদের আগেই বন্ড থেকে টাকা তুলে নিতে পারেন। প্রবীণ নাগরিকরা বয়সের ভিত্তিতে ৪ বছর পর থেকে থেকে ৬ বছর পর পর্যন্ত টাকা অকাল রিডেম্পশন করতে পারবেন।

কীভাবে আরবিআই বন্ড কিনবেন?

দেশের যে কোনো সরকারি ব্যাংক যেমন SBI থেকে শুরু করে বেসরকারি ব্যাংক যেমন PNB, HDFC, ICICI, IDFC ইত্যাদি থেকে আরবিআই বন্ড কেনা যায়।

উল্লেখ্য, আরবিআই বন্ডে যে সুদ পাবেন তা কিন্তু কর যোগ্য। অর্থাৎ প্রাপ্ত সুদের উপর আপনাকে কর দিতে হবে। এছাড়া বন্ডে টাকা রেখে যে সুদ আয় করবেন তার থেকে টিডিএস কাটা হবে। তবে বছরে ১০ হাজার টাকার বেশি সুদ পেলে তবেই TDS কাটা হবে।

অবশ্যই পড়ুন » Minimum Balance: ব্যাংক অ্যাকাউন্টে নূন্যতম ব্যালেন্স না থাকলে কাটা হবে ফাইন! জরুরী নির্দেশিকা RBI এর।

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us

2 thoughts on “কেন্দ্র সরকারের এই বন্ডে টাকা রাখলে পাবেন ৮.৫ শতাংশ সুদ, কয়েকবছরেই হবে টাকা ডবল।”

Leave a Comment