শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

কোন ব্যাঙ্কে FD করলে বেশি রিটার্ন পাবেন? জেনেনিন FD করার জন্য সঠিক ব্যাঙ্ক নির্বাচন করার পদ্ধতি

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Fixed Deposit: যেকোনো ব্যাঙ্কে FD করা মানে একসঙ্গে অনেগুলি টাকা বিনিয়োগ করা। এরকম সময় আপনি যদি সঠিক ব্যাঙ্ক নির্বাচন করতে না পারেন, তাহলে বেশি রিটার্ন থেকে বঞ্চিত হতে পারেন। তাই FD করার আগে আপনাকে বেশ কিছু জিনিস মাথায় রাখতে হবে। আপনি যদি কোনো ব্যাঙ্কে ফিক্সড ডিপোজিট করার ভাবছেন তাহলে এই প্রতিবেদনটি আপনার জন্য বিশেষ হতে পারে। কারন আজ আমরা এই প্রতিবেদনে জানবো FD করার জন্য সঠিক ব্যাঙ্ক নির্বাচন করার পদ্ধতি। 

FD করার জন্য এই ভাবে সঠিক ব্যাঙ্ক নির্বাচন করুন 

আপনি যে ব্যাঙ্কে FD করার কথা ভাবছেন ওই ব্যাঙ্কে কি আপনাকে সবথেকে বেশি রিটার্ন দেবে? এটি নিশ্চিত করার জন্য আপনাকে আরও অন্যান্য ব্যাঙ্কের সঙ্গে ওই ব্যাঙ্কের স্থায়ী আমানত পরিকল্পনার বৈশিষ্ট্য গুলি তুলনা করে দেখতে হবে। নিচে এমনি কিছু  বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে যেগুলি যাচাই করার পর একটি ভালো ব্যাঙ্ক নির্বাচন করতে পারবেন এবং এর ফলে FD-তে বেশি লাভ করতে পারবেন। 

1) সুদের দার: যেকোনো ব্যাঙ্কে FD করার আগে এই ব্যাঙ্ক FD-তে কতো সুদ দিচ্ছে এটি জানা সবথেকে জরুরী। তাই Fixed Deposit করার আগে বিভিন্ন ব্যাঙ্কের সুদের হার যাচাই করে নেওয়া দরকার। সম্প্রতি SBI, Axis, BOB এবং আরো কিছু ব্যাঙ্ক তাদের এফডিতে সুদের হার বাড়িয়েছে, তাই নতুন সুদের দেখুন যে বেশি সুদ কোথায় পাবেন, সেখানে এফডি করে বেশি রিটার্ন পেতে পারেন। আবার কিছু ছোট ফাইনান্স ব্যাঙ্ক রয়েছে যেগুলি স্থায়ী আমানতের উপর সাধারণ ব্যাঙ্কের তুলনায় অনেক বেশি সুদ অফার করে। 

আরও পড়ুন: FD Interest Rate Hike – এখন FD-তে বাম্পার সুদ দিচ্ছে এই ৪টি ব্যাঙ্ক! মে মাসে বাড়িয়েছে সুদের হার।

2) বিনিয়োগের মেয়াদ: যেকোন ব্যাঙ্কে এফডি করার সময় সঠিক মেয়াদের জন্য বিনিয়োগ করা খুবই জরুরী। এর ফলে আপনার ভবিষ্যতে যে সময় টাকার প্রয়োজন হতে পারে সেই হিসেবে বিনিয়োগ করতে পারবেন। তাই সেই সমস্ত ব্যাঙ্কে এফডি করা বেশি ভালো যে ব্যাঙ্ক কয়েকদিন থেকে কয়েক বছর মেয়াদের জন্য বিনিয়োগ করার বিকল্প দেয়। তাহলে আপনি সঠিক মেয়াদের জন্য বিনিয়গ করতে পারবেন। এর ফলে আপনাকে অকাল প্রত্যাহার করতে হবে না এবং জরিমানা থেকে বেঁচে যাবেন। 

3) অকাল প্রতাহার: যে ব্যাঙ্কে আপনি এফডি করার কথা ভাবছেন ওই ব্যাঙ্ক অকাল প্রত্যাহারের জন্য কি কি শর্তাবলী রেখেছে জানা প্রয়োজন। আগে থেকে প্রস্তুত না থাকা কোন সমস্যার কারণে FD-র মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে টাকা তুলে নিতে হতে পারে। তাই যে ব্যাঙ্কে অকাল প্রত্যাহারের শর্তাবলী সহজ ওই ব্যাঙ্কে এফডি করা বেশি সুবিধাজনক। এছাড়াও কিছু ব্যাঙ্ক সুইপ-ইন এবং এফডির বিপরীতে ঋণ এর মতো সুবিধা প্রদান করে। এই সমস্ত বিষয়গুলি মাথায় রেখে আপনাকে সঠিক ব্যাঙ্ক নির্বাচন করতে হবে। 

আরও পড়ুন: PNB FD – পাঞ্জাব ন্যাসনাল ব্যাঙ্কে ১ লক্ষ্য টাকা এফডি কোরলে কোতো রিটার্ন পাবেন?

4) সল্পমেয়াদী FD: ৭ দিন থেকে শুরু করে ১ বছর মেয়াদ এর এফডিগুলি হল সল্পমেয়াদী FD। ধরেননি কোন সময় টাকার প্রয়োজন হতে পরে, যার কারণে সেভিংস অ্যাকাউন্টে টাকা জমা রেখেছেন। কিন্তু আপনি সেভিংস অ্যাকাউন্টের বদলে স্বল্প মেয়াদী এফডি করলে বেশি রিটার্ন পাবেন।

5) স্পেশাল FD: বিভিন্ন ব্যাংক কোন কোন বিশেষ সময় উপলক্ষ্যে স্পেশাল FD স্কিম চালু করে। যেখানে বিনিয়োগ করার জন্য হাতে মাত্র কয়েকদিন সময় থাকে। ব্যাঙ্কগুলি সাধারণ FD-র তুলনায় এই সমস্ত স্পেশাল স্কিমে বেশি সুদ প্রদান করে থাকে। যেমন কোনো বিশেষ সময় ৪৪৪ দিনের এবং ৯৯৯ দিনের FD-তে বিনিয়োগ করে বেশি বেশি সুদ পাওয়ার সুযোগ দেয় ব্যাঙ্ক। তাই আপনি এসব স্পেশাল FD স্কিমে নিয়োগ করে সাধারণ এফডির তুলনায় বেশি রিটার্ন পাবেন।

আরও পড়ুন: Fixed Deposit-এর এই কৌশল জানলে পাবেন আরও বেশি রিটার্ন! FD-তে বেশি সুদ পেতে চাইলে অবশ্যই দেখুন।

এই ধরনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us