শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

Personal Finance Tips: মধ্যবিত্তদের আর টাকার সমস্যা হবে না! মেনে চলুন এই ৫টি নিয়ম

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Best 5 Personal Finance Tips: বেশিরভাগ মধ্যবিত্ত পরিবারে আজীবন টাকার সমস্যা লেগেই থাকে। কিন্তূ আপনি চাইলে এই সমস্যা থেকে বেরোতে পারেন। আজকের ৫টি ব্যাক্তিগত আর্থিক টিপস (Personal Finance Tips) অনুসরন করলে আপনিও আর্থিক স্বাধীনতা পাবেন। আগের তুলনায় এখন মানুষের রোজগার বেড়েছে। কয়েক দশক আগে অনেক মানুষ খাবার টুকুও জোগাড় করতে পারতো না, কিন্তূ এখন এই সমস্যা নেই। তবে এবারের জীবনযাপনে আরও অনেক খরচ বেড়েছে, যা আগে ছিল না।

বর্তমানে সমাজের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে গিয়ে প্রায়ই টাকার সমস্যা দেখা যায়। যার কারণে বর্তমানে আর্থিক সচেতনতা আরও বাড়ানো দরকার। তাই আজ আমরা ৫টি ব্যাক্তিগত আর্থিক টিপস নিয়ে আলোচনা করেছি। নিচে উল্লিখিত এই ৫টি নিয়ম মেনে চললে মধ্যবিত্তদের আর টাকার সমস্যা হবে না। 

৫টি ব্যাক্তিগত আর্থিক টিপস (Best 5 Personal Finance Tips)

আপনি যদি একজন মধ্যবিত্ত পরিবার থেকে আসেন, তাহলে নিচে উল্লেখিত এই ৫টি ব্যক্তিগত আর্থিক টিপস অনুসরণ করে আর্থিক স্বাধীনতা পেতে পারেন। যেগুলি হলো নিয়মিত সঞ্চয়, ক্রেডিট কার্ড বা লোনের সীমিত ব্যাবহার, জরুরি তহবিল তৈরি, জীবন বীমা এবং স্বাস্থ্য বীমা। 

1. নিয়মিত সঞ্চয় (Regular Sevings)

আপনি যদি চান যে আপনার জীবনে টাকার সমস্যা না আসুক তবে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সঞ্চয় শুরু করে দিন। আপনি যদি নিয়মিত অর্থ সঞ্চয় করার অভ্যাস তৈরি করেন, তাহলে জীবনের আর্থিক সমস্যা এড়াতে পারবেন। আগের তুলনায় এখন সঞ্চয় বা বিনিয়োগ করা অনেক সহজ হয়ে গেছে। আপনি আপনার স্মার্ট ফোনের সাহায্যেই মিউচুয়াল ফিন্ড, ব্যাঙ্কের FD এবং PFF-এর মত স্কিমে বিনিয়োগ করতে পারবেন। 

আপনি যদি একটু ঝুঁকি নিতে প্রস্তুত থাকেন তাহলে মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করা সব থেকে ভালো বিকল্প প্রমাণ হতে পারে।  কারণ, সঠিক মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করে আপনি সবথেকে বেশি রিটার্ন পেতে পারেন। আপনি যদি একটি ভালো মিউচুয়াল ফান্ডের ১০ থেকে ১৫ বছর পর্যন্ত SiP চালান তাহলে একটি বড় অংকের তহবিল তৈরি করতে পারবেন। আর যদি আপনি ঝুঁকি নিতে পছন্দ করেন না তাহলে PFF-এর মত স্কিমে বিনিয়োগ করে দীর্ঘমেয়াদে একটি ভালো তহবিল তৈরি করতে পারবেন।  

আরও পড়ুন: বিগত ৫ বছরে এই ৫টি SIP মিউচুয়াল ফান্ড বিনিয়োগকারীদের দিয়েছে ৩৫% পর্যন্ত রিটার্ন।

2. ক্রেডিট কার্ড ও লোনের সীমিত ব্যাবহার 

অত্যধিক লোন এবং ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের কারণে অনেকেই টাকার সমস্যায় পড়ে থাকেন। আপনি যদি টাকার সমস্যা থেকে বেরোতে চান তাহলে এগুলি সীমিত ব্যাবহার করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অনেকেই লোক দেখানোর চক্করে লোন নিয়ে বাড়ি গাড়ি কিনে, এবং পরে EMI দিয়ে দিয়ে জীবন যায়। তাই অত্যন্ত প্রয়োজন ছাড়া লোন নেওয়া একদমই উচিত নয়। এছাড়াও ক্রেডিট কার্ড এর ব্যাবহার আমাদের খরচের পরিমান অনেক বাড়িয়ে দেয়। তাই বিভিন্ন অফার এবং ক্যাশব্যাক এর কারণে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার না করে, শুধুমাত্র প্রয়োজনে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করা উচিত। 

3. জরুরী তহবিল তৈরি (Emergency Fund)

আপনার জীবনে আর্থিক সংকট এলেও কোনো সমস্যায় পড়তে বা ঋণী হতে না চাইলে একটি জরুরী তহবিল তৈরি করে রাখা দরকার। আর যদি আপনি কোন বেসরকারি চাকরি করেন তাহলে তো এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আপনার জরুরী তহবিলে যেন কমপক্ষে ৬ মাসের সমস্ত খরচ চালানোর মতো অর্থ থাকে। আপনার কাছে যদি বর্তমানে এত টাকা না থাকে তাহলে শুরুতে কম টাকা রাখতে পারেন এবং ধীরে ধীরে তা বাড়াতে পারেন। কোনো কারণে যদি আপনার চাকরি চলে যায় তাহলে পরবর্তী ৬ মাস পর্যন্ত জরুরী তহবিলের টাকায় খরচ চালাতে পারবেন, এবং নতুন চাকরি বা রোজগারের পথ খোঁজার সময় পাবেন। 

4) জীবন বীমা (Life Insurance)

আপনার রোজগারের টাকায় যদি আপনার পরিবারের সমস্ত খরচা চলে, তাহলে আপনার জীবন বীমা করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই যেকোন চাকরিতে যুক্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বিশেষজ্ঞরা একটি জীবন বীমা কেনার পরামর্শ দেয়। আপনি যত তাড়াতাড়ি জীবন বীমা কিনবেন তত ভালো। কারণ কম বয়সে জীবন বীমা নিলে অনেক কম প্রিমিয়ামে বড় কাভারেজ পাবেন। এর ফলে আপনি যদি কোন দুর্ঘটনার শিকার হন, তবুও আপনার পরিবারে আর্থিক সংকট আসবে না। 

আরও পড়ুন: PM Golden Hour Scheme – প্রধানমন্ত্রী গোল্ডেন আওয়ার স্কিম! পাবেন ১.৫ লক্ষ টাকার বীমা।

5) স্বাস্থ্য বীমা (Health Insurance)

বর্তমানের আধুনিক জীবন যাপনে এবং অপুষ্টিকর খাবারের কারণে মানুষের নানা ধরনের অসুখ লেগেই রয়েছে। বর্তমানে চিকিৎসার খরচ কত বেশি এটা হয়তো আপনি ভালোভাবেই জানেন। পরিবারের কারো যদি বড় কিছু অসুখ হয়ে যায় তাহলে সঞ্চয় করার সমস্ত অর্থ চিকিৎসা করার জন্য শেষ হয়ে যায়। এছাড়াও কারো কারো তো সম্পত্তিও বিক্রি হয়ে যায়। এরকম সমস্যা থেকে বাঁচার জন্য একটি ভাল স্বাস্থ্য বীমা কেনা জরুরী, যেন ওই স্বাস্থ্য বীমাতে আপনার পরিবারের সমস্ত লোক কাভারেজ পান। 

আরও পড়ুন: New Health Insurance Rules – এখন দারুন সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে! জেনেনিন স্বাস্থ্য বীমার নতুন নিয়ম।

উপসংহার 

আগের তুলনায় বর্তমানে যেমন মানুষের আয় অনেক বেড়েছে তেমনি খরচের পরিমাণও বেড়েছে। তাই প্রায় বেশিরভাগ মধ্যবিত্ত পরিবারেই টাকার সমস্যা লেগে থাকে। এই টাকা সমস্যা থেকে যদি আপনি বের হতে চান তাহলে আপনাকে নিয়মিত সঞ্চয় করতে হবে, লোন এবং ক্রেডিট কার্ডের ব্যবহার কমাতে হবে এবং একটি জরুরি তহবিল তৈরি করতে হবে। এছাড়াও আর্থিক সংকট এড়াতে জীবন বিমানে ও স্বাস্থ্য বীমা করা প্রয়োজন।

আরও পড়ুন: Money Saving Tips – কম বেতনেও বেশি সঞ্চয় সম্ভব! জেনে নিন টাকা সঞ্চয়ের ফর্মুলা।