শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স FD ক্যালকুলেটর

Lakshmir Bhandar: লক্ষ্মীর ভান্ডারের টাকা জমিয়ে কোটিপতি হতে চান? কিভাবে বিনিয়োগ করবেন দেখুন

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Lakshmir Bhandar: রাজ্য সরকার পশ্চিমবঙ্গের মহিলাদের আর্থিক সুবিধা প্রদান করার জন্য লক্ষ্মীর ভান্ডার (Lakshmir Bhandar) প্রকল্প চালু করেছেন। এই প্রকল্পের অধীনে বর্তমানে ২৫ বছর বা তার বেশি বয়সী মহিলাদের প্রতি মাসে ১০০০ টাকা আর্থিক সুবিধা প্রদান করা হচ্ছে। আপনিও যদি এই সুবিধা পেয়ে থাকেন তাহলে, এই প্রকল্প থেকে প্রাপ্ত টাকা জমিয়ে খুব সহজে কোটিপতি হতে পারবেন। এটি শুনতে অবিশ্বাস্য লাগলেও বাস্তবে সম্ভব। এই নিবন্ধের মধ্যে লক্ষ্মীর ভান্ডারের টাকার জমির কোটিপতি হওয়ার সম্পূর্ণ পদক্ষেপ জানব। তাই আপনিও যদি সঞ্চয় করে ধনী হতে চান তাহলে আজকের এই নিবন্ধটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

লক্ষ্মীর ভান্ডারের টাকা জমিয়ে কোটিপতি

আগে লক্ষীর ভান্ডার (Lakshmir Bhandar) প্রকল্পের অধীনে পশ্চিমবঙ্গের মহিলারা প্রতি মাসে ৫০০ টাকা তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পেত। কিন্তু গত কয়েক মাস থেকে এর পরিমাণ ৫০০ টাকা থেকে বাড়ি ১০০০ টাকা করা হয়েছে। রাজ্যের মহিলারা ২৫ বছর বয়স থেকে এই প্রকল্পের সুবিধা পেয়ে থাকে। তারা যদি এই টাকা খরচ করার বদলে কোন একটি ভালো মিউচুয়াল ফান্ড (Mutual Fund) স্কিমে এসআইপি করে, তাহলে খুব সহজে কোটিপতি হতে পারেন। 

লক্ষ্মীর ভান্ডার (Lakshmir Bhandar) প্রকল্পের টাকা ২৫ বছর বয়স থেকে অ্যাকাউন্টে আসা শুরু হয়ে যায়। আপনি যদি প্রতিমাসে এই ১০০০ টাকা খরচ করার বদলে কোনো এক ভালো মিউচুয়াল ফান্ডে SIP এর মাধ্যমে ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত বিনিয়োগ করেন, তাহলে আপনার ৩৫ বছর বিনিয়োগ করা হবে। এই সময়ে আপনার মোট ৪,২০,০০০ টাকা জমা করা হবে। আপনি যদি ওই মিউচুয়াল ফান্ডে বার্ষিক গড় ১৪ শতাংশ রিটার্ন পান, তাহলে জমাকৃত অর্থের উপর প্রায় ১,৪৪,৪০,৬৪৫ টাকা সুদ পাবেন। অর্থাৎ ৬০ বছর পূর্ন হবার পর আপনি মোট ১,৪৮,৬০,৬৪৫ টাকা রিটার্ন পাবেন। এইভাবে আপনি লক্ষ্মীর ভান্ডারের টাকা জমিয়ে সহজেই কোটিপতি হতে পারবেন। 

আপনি যে মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করবেন, সেখানে যদি ১৪ শতাংশ রিটার্ন না পান তাহলে কোটিপতি হতে পারবেন না, তবে লাখপতি খুব সহজেই হবেন। তাই বিনিয়োগ করার জন্য একটি ভালো মিউচুয়াল ফান্ড নির্বাচন করা অত্যন্ত জরুরি। আবার অনেকের পরিবারের আর্থিক পরিস্তিতি খারাপ হওয়ায় Lakshmir Bhandar-এর পুরো ১০০০ টাকা সঞ্চয় করতে অক্ষম হয়। তারা যদি একটু কষ্ট করে ৫০০ টাকাও বাঁচিয়ে এইভাবে বিনিয়োগ করেন, তবুও খুব সহজেই লাখপতি হতে পারেন। 

আরও পড়ুন: খেটে খাওয়া মানুষও কিভাবে কোটিপতি হতে পারে? দেখুন চক্রবৃদ্ধি সুদের জাদু।

কিছু গুরুত্বপুর্ন বিষয়

বিনিয়োগ করার আগে মনে রাখবেন মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করা ঝুঁকিপূর্ণ। তাই আপনি যদি ঝুঁকি নিতে প্রস্তুত থাকেন তবেই বিনিয়োগ করুন। সঙ্গে আপনাকে দীর্ঘ্য সময়ের জন্য বিনিয়োগ পরিকল্পনা করতে হবে। কারন, মিউচুয়াল ফান্ডে দীর্ঘ্যমেয়াদী বিনিয়োগ ছাড়া আপনি চক্রবৃদ্ধি হারের সুবিধা পাবেন না। আপনি চাইলে ১০০০ টাকা ২ ভাগে ভাগ করে ২টি মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করতে পারবেন। এতে আপনার ঝুঁকির ভয় কিছুটা কম হবে।

আরও পড়ুন: Mutual Fund Strategy – মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করার 15x20x12 সূত্র জানলে খুব সহজেই কোটিপতি হতে পারবেন! দেখুন বিস্তারিত।

দাবিত্যাগ (Disclaimer)

আমরা কোনো সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ বোর্ড অফ ইন্ডিয়া (SEBI) নিবন্ধিত আর্থিক উপদেষ্টা নই। এই নিবন্ধটি শুধুমাত্র তথ্য ও শিক্ষামূলক উদ্দেশ্যে তৈরি করা হয়েছে। এটি কোনোভাবেই বিনিয়োগ করার জন্য পরামর্শ প্রদান করে না। আপনার বিনিয়োগ সিদ্ধান্তগুলি আপনার নিজের গবেষণা এবং ঝুঁকি সহনশীলতার উপর ভিত্তি করে নিতে হবে। আপনার বিনিয়োগের ফলাফলের জন্য ফাইনান্স বার্তা কোনোভাবেই দায়ী থাকবে না।

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us