শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

প্রবীন নাগরিকদের জন্য একটি বড় সতর্কবার্তা! সুপ্রিম কোর্টের বেদনাদায়ক রায়।

Photo of author

By Anjan Mahata

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

SUDESH CHHIKARA vs ramadevi case: আপনি যদি এখন থেকে আপনার বৃদ্ধ বয়েসের কথা না ভাবেন তাহলে ভবিষ্যতে আপনি খুব বড় সমস্যায় পড়তে পারেন। আজকের এই প্রতিবেদনে সুপ্রিম কোর্টের একটি রায় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের এই রায়টি প্রত্যেককে একটি শিক্ষা দিয়ে যাবে। আমরা যদি কখনো আমাদের সন্তানদের সঙ্গে বিভিন্ন ট্রানজেকশন বা লেনদেন করে থাকি তাহলে কোন কোন বিষয়গুলি খেয়াল রাখতে হবে জেনে নিন নইলে পরবর্তী ক্ষেত্রে সমস্যায় পড়তে হবে এবং আইনও আপনার সাহায্য করবে না। তাই আজকের এই প্রতিবেদনটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ, অবশ্যই প্রতিবেদনটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

হাই কোর্টের কেস

আজকে সুপ্রিম কোর্টের যে কেসটি সম্পর্কে আলোচনা করব সেই কেসটির নাম হল SUDESH CHHIKARA VSRAMTIDEVION 6 DECEMBER (2022CIVIL APPEAL NO. 174 OF 2021)। রমণী দেবী নামে ১জন বিধবা মহিলা ছিলেন যার স্বামী কয়েকদিন আগে মারা গিয়েছিলাম তার ৩জন সন্তান ছিল ২জন মেয়ে এবং ১জন ছেলে। এরপর রমনীদেবী তার তিনজন সন্তানকে তার এবং তার স্বামীর সমস্ত সম্পত্তি সমান ভাগে ভাগ করে দিলেন। এরপর সমস্ত সম্পত্তি সন্তানদের নামে করে দেওয়ার পর তার সন্তানরা কেউই তার ভরণপোষণের দায়িত্ব নিচ্ছিল না এবং তার জীবন চলার জন্য যে মেন্টেনেন্স খরচ প্রয়োজন কোন খরচেই তার সন্তানরা বহন করছিলেন না।

এরপর রমনীদেবী ভাবলেন তিনি যদি তার সম্পত্তি ফিরে পান তাহলে সে সম্পত্তির ভাড়া দিয়ে বা বিক্রি করে তার ভরণপোষণ তিনি নিজেই চালাতে পারবেন। তাই তিনি তার সম্পত্তি ফেরত পাওয়ার জন্য সম্পত্তি বিভাগের কয়েকদিন পরেই হাইকোর্টে একটি কেস ফাইল করেন Under Section 23 of the Maintenance and Welfare Parents and Senior Citizen act, 2007। এক্ষেত্রে রমনীদেবী দাবি করেন যে তিনি তার সমস্ত সম্পত্তি তার সন্তানদের নামে লিখে দেওয়ার পরেও তার সন্তানরা তার ভরণপোষণের দায়িত্ব নিচ্ছে না তাই তিনি যেন তার সম্পত্তি ফিরে পান।

হাই কোর্টের রায়

এরপর হাইকোর্ট রায় দিয়েছিলেন রমনী দেবীর পক্ষে। কিন্তু তবুও তার সন্তানেরা দাবি করেন যে তিনি তার সম্পত্তি দেওয়ার সময় কোন জায়গায় উল্লেখ করেননি তার সন্তানদের তার ভরণ পোষণের দায়িত্ব নিতে হবে তবুও হাইকোর্ট তার রায় পরিবর্তন করেনি। হাইকোর্টের রায় রমনীদেবীর পক্ষেই ছিল।

অবশ্যই পড়ুন » Nominee Rules: আপনার নামিনি থাকলেও এক টাকাও পাবেন না! জেনেনিন নমিনি সংক্রান্ত নিয়ম কানুন।

সুপ্রিম কোর্টের কেস

হাইকোর্টের রায় রমণীদেবের পক্ষে ছিল দেখে তার একজন কন্যা সুপ্রিম কোর্টে এই কেসটি ফাইল করেন। এরপর সুপ্রিম কোর্ট যখন পুরো বিষয়টি খুতিয়ে দেখেন তখন দেখলেন সম্পত্তি দেওয়ার সময় কোন জায়গাতেই উল্লেখ করা ছিল না যে তার সন্তানদের তার বৃদ্ধ মায়ের দায়িত্ব নিতে হবে।

সুপ্রিম কোর্টের রায়

এরপর সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছেন সিনিয়র সিটিজেন এক্টের নিয়ম অনুসারে কোন সিনিয়র সিটিজেন যদি তার সন্তানদের কোন সম্পত্তি গিফট করেন, তাহলে সম্পত্তি গিফট করার সময় অবশ্যই এটা উল্লেখ থাকতে হবে যে পরবর্তি ক্ষেত্রে তার ভরণপোষণের দায়িত্ব যেন তার সন্তানরা নিয়ে থাকেন তাহলেই তার সন্তানদের উপর তার বাবা মায়ের ভরণপোষণের দায়িত্ব নিতে হবে। এই কন্ডিশনটি যদি উল্লেখ থাকে তবেই এই কেসটি সিনিয়র সিটিজেন এক্টের মধ্যে আসে। এক্ষেত্রে সুপ্রিম কোর্ট যেহেতু জানিয়েছেন তার সম্পত্তি তার সন্তানদের গিফট করার সময় কোন রকম কন্ডিশন উল্লেখ করেননি তাই ওই সম্পত্তি পুরোপুরি ভাবে তার সন্তানদের।

এই ঘটনাটি থেকে কি শিক্ষা পেলেন

উপরের ঘটনাটি খুবই বেদনাদায়ক একটি ঘটনা। এই ঘটনাটি থেকে আমরা শিখলাম কখনোই সন্তানদের প্রতি অতিরিক্ত মোহ-মায়ার বশীভূত হয়ে সরকারি আইন ভুলে যাওয়া চলবে না। কারণ এরকম ঘটনা আমাদের চারপাশে হয়ে থাকে এবং আপনিও অবশ্যই এরকম ঘটনা লক্ষ্য করবেন। তাই আপনি যখন আপনার সন্তানদের আপনার সম্পত্তি ভাগ করে দেবেন তখন অবশ্যই আপনার এবং আপনার স্ত্রীর ভরণপোষণের দায়িত্ব যাতে আপনার সন্তানরা নিয়ে থাকেন সেই শর্তটি অবশ্যই উল্লেখ করে দেবেন।

অবশ্যই পড়ুন » Land Buy: নতুন জমি কেনার আগে এই ৩টি কাজ অবশ্যই করবেন, নইলে পড়তে হবে মহা বিপদে!

এই ধরনের গুরুত্বপূর্ন তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us