শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

Online Business : যেকোনো কাজের সঙ্গে করুন এই ব্যাবসা, প্রতিমাসে হবে ২০-৩০ হাজার টাকা আয়

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Online Business Idea: আপনি যদি কোনো চাকরি বা ব্যাবসার সঙ্গে জড়িত থাকার সঙ্গে সঙ্গে কিছু বাড়তি আয় করার জন্য ব্যাবসা করার কথা ভাবছেন। তাহলে এই অনলাইন ব্যাবসা করতে পারেন। অল্প পুঁজিতে শুরু করতে পারবেন এই ব্যাবসা এবং প্রতিমাসে ২০-৩০ হাজার টাকা আয় করতে পারবেন। আপনিও যদি এই ব্যাবসা সম্পর্কে জানতে ইচ্ছুক, তাহলে আজকের এই নিবন্ধটি সম্পূর্ন পড়ুন। 

যেকোনো কাজের সঙ্গে করুন এই ব্যাবসা

আজকে আমরা যে ব্যাবসা সম্পর্কে জানবো সেটি হলো ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি। নাম শুনে ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই। আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কে না জানেন তবুও করতে পারবেন। আপনি যদি ফেসবুক ব্যাবহার করেন তাহলে দেখবেন এখন আপনার এলাকারও অনেক ছোট বড়ো ব্যাবসায়ী তাদের ব্যাবসার বিজ্ঞাপন ফেইসবুকেতে চালাচ্ছে। বর্তমানে যেকোনো ব্যাবসার বিজ্ঞাপন দেওয়ার শ্রেষ্ট জায়গা হলো সোশ্যাল মিডিয়া। আপনি যেকোনো ব্যাবসায়ীর জন্য বিজ্ঞাপন চালিয়ে তাদের ব্যাবসা বাড়াতে সাহায্য করবে এবং এর বদলে ওই ব্যাবসায়ীর কাছ থেকে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা চার্জ করতে পারবেন। 

আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিং না জানেন তাহলে কোনো ডিজিটাল মার্কেটিং এর অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ব্যাক্তিকে নিযুক্ত করতে হবে। প্রথমে আপনি শুধুমাত্র একজন ব্যাক্তিকে নিযুক্ত করতে পারেন। এরপর ধীরে ধীরে আপনার ব্যাবসা বাড়লে আপনার ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সির টীম বাড়াতে হবে।

আরও পড়ুন: Business Idea – ডিজিটাল যুগের এই ব্যাবসায় বাড়িতে বসেই হবে ৫০,০০০ টাকা আয়! বিনা পুঁজিতে শুরু করতে পারবেন।

অল্প পুঁজিতে ব্যাবসা শুরু করতে পারবেন 

ব্যাবসাতে বিনিয়োগ করার জন্য আপনার কাছে যদি বেশি মূলধন না থাকে, তবুও চিন্তার কিছু কারণ নেই। আপনি অল্প পুঁজিতেই ডিজিটাল মার্কেটিং এর ব্যাবসা শুরু করতে পারবেন। এরজন্য আপনাকে প্রথমে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে হবে। যেখানে আপনাদের এই ব্যাবসা সম্পর্কে বিস্তারিত দেওয়া থাকবে এবং ক্লায়েন্টরা ওখান থেকে যোগাযোগ করতে পারবেন। ওয়েবসাইটের জন্য যেন আপনার ব্যাবসার নাম অনুযায়ী হয়। উদাহরণ স্বরূপ ‘বাংলা পোর্টাল ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি’। এই ধরনের ওয়েবসাইট বানাতে আপনার ৫-৭ হাজার টাকা মাত্র খরচা হবে। নিজে না বানাতে পারলে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন। 

প্রথমে আপনার শুধুমাত্র এই টুকুই খরচ। এরপর যতক্ষণ না পর্যন্ত কোনো ক্লায়েন্ট পাচ্ছেন, ততক্ষন পর্যন্ত কোনো ডিজিটাল মার্কেটিং অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ব্যাক্তিকে নিযুক্ত করার প্রয়োজন নেই। আপনি প্রথম ক্লায়েন্টের টাকা থেকেই আপনার এজেন্সিতে একজন ব্যাক্তি নিযুক্ত করতে পারবেন। অর্থাৎ এই ব্যাবসা শুরু করতে আপনার প্রথমে মাত্র ৫-৭ হাজার টাকা খরচ হবে। 

আরও পড়ুন: Make Money Online – হাতে থাকা স্মার্টফোনের মাধ্যমে এই ৩টি উপায়ে অনলাইন থেকে পার্টটাইম ইনকাম করুন।

প্রতিমাসে হবে ২০-৩০ হাজার টাকা আয় 

আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং পরিষেবা প্রদানের জন্য একজন ক্লায়েন্ট থেকে সর্বনিম্ন ১০-১৫ হাজার টাকা চার্জ করতে পারবেন। অবার ওই টাকা থেকে আপনার সঙ্গে নিযুক্ত ব্যাক্তিকে বেতন দিতেও হবে। এরপর ধরেননি আপনার কাছে থাকছে ৪ থেকে ৫ হাজার টাকা। অর্থাৎ প্রতিমাসে ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা আয় করতে মাত্র ৫-৬ টি ক্লায়েন্ট দরকার হবে। এরপর আপনার পরিষেবায় যদি তারা লাভবান হয়, তাহলে মাসের পর মাস আপনার কাছ থেকেই পরিষেবা নেবে। অর্থাৎ আপনি ওই পুরনো ক্লায়েন্ট থেকেই প্রতিমাসে টাকা পেতে থাকবেন। এরপর ধীরে ধীরে ক্লায়েন্ট বাড়লে ইনকাম আরোও অনেক বাড়বে, যা হয়তো আপনি পরিকল্পনাও করতে পারবেন না।

আরও পড়ুন: Make Money Online – AI দিয়ে ভিডিও বানিয়ে প্রতিমাসে লক্ষ টাকা আয় করুন, দেখেনিন ৫টি কার্যকারী পদ্ধতি।

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের টেলিগ্রাম এবং হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us