শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

Business Idea: পোস্ট অফিসের সাহায্য শুরু করুন এই ব্যাবসা, কম বিনিয়োগই হবে ভালো আয়

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Low Investment Business Idea: যে সমস্ত ব্যক্তিরা কম পুঁজিতে কোন ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবছেন তাদের জন্য আজকে একটি দুর্দান্ত ব্যবসার পরিকল্পনা নিয়ে এসেছি। আপনারা অল্প বিনিয়োগ করে সরকারি সংস্থার সাথে যুক্ত হয়ে এই ব্যবসা শুরু করে প্রতি মাসে ভালো আয় করতে পারবেন। আমরা আজকে যে ব্যবসার কথা বলছি সেটি হলো পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে ব্যবসা শুরু করা। আপনি যদি এই ব্যবসার পরিকল্পনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান তাহলে সম্পূর্ণ নিবন্ধটি পড়ুন। 

পোস্ট অফিসের সাহায্য শুরু করুন এই ব্যাবসা 

বর্তমানে সারাদেশ জুড়িয়ে প্রায় ১.৫৫ লক্ষ পোস্ট অফিস রয়েছে, তবুও সরকার দেশের সমস্ত জায়গায় পোস্ট অফিসের পরিষেবা পৌঁছে দিতে পারছেন না। এর জন্য সাধারণ মানুষকে পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সাধারণ মানুষ পোস্ট অফিসের দু’ধরনের ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে আয় করতে পারবেন। ফ্র্যাঞ্চাইজি আউটলেটের এবং ডাক এজেন্ট ফ্র্যাঞ্চাইজি। এই ব্যবসা শুরু করে আপনি সাধারণ মানুষকে পোস্ট অফিসের বিভিন্ন পরিষেবা প্রদান করতে পারবেন এবং তার থেকে কমিশনার করতে পারবেন। পোস্ট অফিস হল একটি সফল ব্যবসার পরিকল্পনা, এর ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে অনেকেই প্রতি মাসে ভালো পরিমাণ অর্থ উপার্জন করছে।

আরও পড়ুন: Post Office Franchise – নিজের বাড়িতে পোস্ট অফিস খুলে মাসে ৫০,০০০ টাকা আয় করুন, জেনেনিন সম্পূর্ন পদ্ধতি।

কম বিনিয়োগেই হবে ভাল আয় 

পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে ব্যবসা শুরু করার জন্য সবচেয়ে প্রয়োজনীয় বিষয় হল সার্ভিস পাস করানো। তাই এতে বিনিয়োগের পরিমাণ অনেক কম। আপনি যদি পোস্টাল এজেন্ট ফ্র্যাঞ্চাইজি নেন তাহলে একটু বেশি বিনিয়োগ করতে হতে পারে। কারণ, এতে আপনাকে স্টেশনারি জিনিসপত্র কিনতে বেশি খরচ হবে। পোস্ট অফিস খোলার আপনার কাছে একটি ২০০ বর্গফুট অফিস এরিয়া থাকা দরকার। এছাড়া পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি আবেদন করার জন্য সর্বনিম্ন ৫০০০ টাকা নিরাপত্তার পরিমাণ প্রয়োজন। 

পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি নেওয়ার পর আপনি সাধারণ মানুষকে পোস্ট অফিসের বিভিন্ন পরিষেবা প্রদানের মাধ্যমে কমিশন আয় করতে পারবেন। যেমন, স্পীড পোষ্টের জন্য পাঁচ টাকা কমিশন, মানি অর্ডারের জন্য তিন থেকে পাঁচ টাকা, পোস্টাল স্ট্যাম্প এবং স্টেশনারিতে ৫ শতাংশ কমিশন পাবেন। এইভাবে আপনি পোস্ট অফিসের বিভিন্ন পরিষেবা থেকে কমিশন আয় করতে পারবেন। 

আরও পড়ুন: Low Budget Business – মাত্র ১০ হাজার টাকা খরচ করেই শুরু করেন এই ৩টি ব্যবসা! পুরুষ মহিলা সবার জন্য। ‌

কারা এই ব্যাবসা শুরু করতে পারবেন? 

পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে ব্যাবসা শুরু করার জন্য আপনার বয়স সর্বনিম্ন ১৮ বছর হওয়া প্রয়োজন। এছাড়াও যে ব্যক্তি এর জন্য আবেদন করবেন তিনি যেন একটি স্বীকৃত বিদ্যালয় থেকে অষ্টম শ্রেণী পাস করে থাকে। এরপর পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি নেওয়ার জন্য একটি ফর্ম পূরণ করে জমা দিতে হবে। সার্ভিস পাস হওয়ার পর নির্বাচনের ক্ষেত্রে আবেদনকারীকে পোস্ট অফিসের সঙ্গে এএমইউ স্বাক্ষর করতে হবে। আবেদন করার আগে অবশ্যই পোস্ট অফিসের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে এর সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জেনে নিতে হবে। নিচের দেওয়া লিঙ্ক থেকে পিডিএফ ডাউনলোড করে পোস্ট অফিসের ফ্র্যাঞ্চাইজি সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে পারবেন। 

PDF Link: https://www.indiapost.gov.in/VAS/DOP_PDFFiles/Franchise.pdf

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us