শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

ITR ফাইল দাখিল করার সময় অবশ্যই এই বিষয়গুলি দেখে নিন, নইলে দিতে হবে ১০,০০০ টাকা জরিমানা।

Photo of author

By Anjan Mahata

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

প্রত্যেক ভারতীয় নাগরিকদের জন্য ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল (ITR) করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই ফাইল করার মধ্যে দিয়ে একদিকে যেমন ট্যাক্স রিফান্ড পাওয়া যায়, তেমনই ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল দাখিল করার আরো অনেক দীর্ঘ মেয়াদি সুবিধা রয়েছে। তবে আইটিআর ফাইল দাখিল করার আগে বেশ কয়েকটি বিষয় আপনাকে মাথায় রাখতে হবে।

আপনি কি আয়কর রিটার্ন ফাইল দাখিল করতে চান? তাহলে অবশ্যই আজকের প্রতিবেদনটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। আইটিআর ফাইল দাখিল করার আগে কোনো কোনো জিনিসগুলি কাছে রাখতে হবে, তা নিয়ে আজ আমরা আলোচনা করবো। এটি না জানা থাকলে বড় বিপদে পড়তে পারেন। কর রিফান্ড থেকেও বঞ্চিত হতে পারেন, এমনকি ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা দিতে হতে পারে।

কাছে রাখুন ১৬ নম্বর ফর্ম

আয়কর রিটার্ন ফাইল (ITR) দাখিল করার জন্য ফর্ম ১৬ খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও প্রয়োজনীয় নথি। সমস্ত চাকুরীজীবিদের আইটিআর করার জন্য ১৬ নম্বর ফর্ম দরকার। এই ফর্মে বেতন, প্রভিডেন্ট ফান্ড সহ ঋণের বিস্তারিত বিবরণ দেওয়া থাকে। এই সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য আইটিআর ফাইল করার সময় জমা করা বাধ্যতামূলক। তবে এই ফর্ম অনলাইন থেকে পাওয়া যায়না। আপনি যে সংস্থায় কাজ করেন, সেই সংস্থা থেকেই এই ফর্ম পাওয়া যাবে।

কাছে রাখুন Form 26AS ও TDS সার্টিফিকেট

ITR ফাইল দাখিল করার জন্য ফর্ম 26AS ও TDS সার্টিফিকেটও খুব গুরুত্বপূর্ণ। Form 26AS হলো ট্যাক্স ক্রেডিট স্টেটমেন্ট, যার একটি আর্থিক বর্ষে একজন ব্যাক্তির আর্থিক কার্যকলাপের বিবরণ দেওয়া থাকে। এতে বেতন ও সুদের আয় থেকে কত টাকা কর দিয়েছেন তারও উল্লেখ থাকে। একই সাথে দিতে হয় TDS সার্টিফিকেট। যেখানে বিভিন্ন সোর্স থেকে কর জমা করার বিবরণ দেওয়া থাকে।

অবশ্যই পড়ুন » Tax Savings Tips: ২০২৪ সালে এইভাবে ট্যাক্স বাঁচান, ইনকাম ট্যাক্স বাঁচানোর সহজ উপায়

আয়ের উৎস ও তার হিসাব

আইটিআর ফাইল দাখিল করার সময় কোনো কোনো ক্ষেত্রে থেকে কত টাকা আয় করেছেন তার হিসাব আগে থেকে করে রাখতে হবে আপানাকে। নয়তো ফর্ম ফিলাপের সময় সমস্যা দেখা দিতে পারে। সেভিংস অ্যাকাউন্ট কিংবা ফিক্সড ডিপোজিট কিংবা বিভিন্ন স্কিম থেকে সুদ বাবদ কত টাকা আয় করেছেন, তার তথ্য আগে থেকে হিসাব করতে হবে আপনাকে। ব্যাঙ্ক স্টেটমেন্ট থেকে এই তথ্য পাওয়া যাবে।

আয়কর ধারা 80C-তে ছাড়


আয়কর ধারা ৮০সি অনুযায়ী, যারা কর প্রদান করেন তারা বেশ কিছু ক্ষেত্রে করের উপর ছাড় পেয়ে থাকেন। আয়কর রিটার্ন ফাইল দাখিল করার সময় এ বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে। এ বিষয়ে আগে থেকে হিসাব করে রাখতে হবে। নয়তো ট্যাক্স ছাড় থেকে বঞ্চিত হতে পারেন।

অবশ্যই পড়ুন » GST New Rule: ১ মার্চ থেকে GST এর নিয়েমে বিরাট পরিবর্তন, না জানলে আপনার আর্থিক ক্ষতি হতে পারে।

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us

Leave a Comment