শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

Loan EMI: ১লা এপ্রিল থেকে RBI এর নতুন নির্দেশিকা জারি! লোনের ইএমআই দিতে দেরি হলেও চাপবে না অতিরিক্ত চার্জ।

Photo of author

By Anjan Mahata

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

যে কোনো আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে ১ এপ্রিল দিনটির গুরুত্ব অপরিসীম। কারণ এই দিন শুরু হয় নতুন একটি অর্থবর্ষ। নতুন অর্থবর্ষ থেকে আর্থিক প্রতিষ্ঠান গুলি নিজের পরিষেবা আরও উন্নত করতে বিভিন্ন ধরনের নতুন নিয়ম কানুন চালু করার কথা ভাবে। সেই অনুযায়ী মাত্র একদিন আগে অর্থাৎ ১ এপ্রিলে শুরু হয়েছে ২০২৪-২৫ অর্থবর্ষ। এই দিন থেকে দেশের বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান নানা ধরনের নতুন নিয়ম কানুন কার্যকর করেছে। এরই মাঝে গ্রাহকের সুবিধার্থে লোন গ্রহণের ক্ষেত্রে ১ এপ্রিল থেকেই নতুন ব্যবস্থাপনা চালু করার কথা বলেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া।

ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক অর্থাৎ রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার নয়া নির্দেশ অনুসারে লোন গ্রহণকারী ব্যক্তিদের আর্থিক বোঝা অনেকটাই হালকা হতে চলেছে। অনেক সময় তাৎক্ষণিক অর্থের প্রয়োজনে বহু গ্রাহককেই ব্যাঙ্ক বা অন্যান্য কোন আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে লোন নিতে হয়। লোনের টাকার উপর ভিত্তি করে নির্দিষ্ট সময় ধরে আবার ইএমআইও শোধ করতে হয়। কোনো সময় সেই ইএমআই দিতে দেরি হলে গ্রাহকের উপর বাড়তি চাপ সৃষ্টি হতো।

লোনের EMI দিতে দেরি হলেও চাপবে না অতিরিক্ত চার্জ

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার নতুন নিয়ম অনুসারে গ্রাহকের যদি মাসিক ইএমআই দিতে দেরিও হয় তবে তারা বাড়তি সুদের চাপ থেকে মুক্তি পাবেন। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ইএমআই না দিলে ঋণ গ্রহণকারী ব্যক্তির উপর জরিমানা ধার্য করা ঠিকই, তবে সুদের উপর বাড়তি কোন সুদ ধার্য করা হবে না। ইতিমধ্যেই ব্যাঙ্ক এবং অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান গুলিকে এই প্রসঙ্গে নির্দেশ দিয়ে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে যদি কোন গ্রাহক দেরীতে ইএমআই প্রদান করেন তবে তাকে কিস্তির টাকার উপর অতিরিক্ত কোন সুদের টাকা চার্জ করা যাবে না।

অবশ্যই পড়ুন » লোন নিয়ে বড়লোক হওয়ার উপায়! বড়লোক হতে চাইলে এইভাবে লোন নিয়ে সেই টাকা ব্যবহার করুন

যেহেতু রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নির্দেশ অনুসারে দেরিতে ইএমআই দেওয়ার জন্য গ্রাহককে আর অতিরিক্ত কোন সুদের টাকা দিতে হবে না, ফলে গ্রাহকের উপর থেকে আর্থিক বোঝা বেশ কিছুটা কম হবে। তবে শুধুমাত্র জরিমানার অঙ্কটি হকের কাছ থেকে কেটে নেওয়া হবে ইএমআই দেরিতে দেওয়ার জন্য। এতদিন পর্যন্ত ইএমআই এর ক্ষেত্রে বিলম্বের জন্য গ্রাহককে যে চার্জ দিতে হতো তাকে আর্থিক পরিভাষায় বলা হয় পেনাল ইন্টারেস্ট ও পেনাল চার্জেস। গ্রাহকের উপর আর্থিক সংস্থার তরফ থেকে যে অতিরিক্ত সুদের হার ধার্য করা হয় তাকেই বলা হয় পেনাল চার্জেস।

পেনাল চার্জের নিয়ম

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার তরফ থেকে পেনাল চার্জেস এর ক্ষেত্রে কোন উর্ধ্বসীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়নি। তবে ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের তরফ থেকে প্রতিষ্ঠান গুলিকে এই কথা নির্দিষ্ট করে বলা হয়েছে যে নিজেদের মুনাফা অর্জনের জন্য কোন আর্থিক প্রতিষ্ঠান তার গ্রাহকের কাছ থেকে অতিরিক্ত পরিমাণ পেনাল চার্জেস দাবি করতে পারবে না। এই কারণেই পেনাল চার্জেস এর একটি সীমা যাতে নির্দিষ্ট থাকে সেই বিষয়টি বিশেষভাবে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলিকে মানার নির্দেশ দিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক। এবং লোনের চুক্তির সঙ্গে সেই পেনাল চার্জের বিষয়টিও সামঞ্জস্যপূর্ণ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আরবিআই এর তরফ থেকে।

অবশ্যই পড়ুন » লোনের কিস্তি সময় মতো পরিশোধ করতে না পারলে কত টাকা জরিমানা লাগবে? লোন নেওয়ার আগে অবশ্যই জেনে রাখুন।

এই ধরনের গুরুত্বপূর্ন তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us