শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

Gold Investment: সোনা কিনলে ব্যাঙ্কের FD-র থেকে দ্রুত টাকা বাড়বে! ১ বছরের মুনাফা শুনলে চমকে উঠবেন

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Gold Investment: অনেকেই শেয়ার বাজারে ও মিউচুয়াল ফান্ডে টাকা বিনিয়োগ করে। এতে যেমন উচ্চ রিটার্ন, তেমনি ঝুঁকির ভয়ও থাকে। আর যে সমস্ত ব্যাক্তিরা ঝুঁকি নিতে পছন্দ করেন তারা ব্যাঙ্কে FD করে বা পোস্ট অফিসের বিভিন্ন স্কিমে বিনিয়োগ করে। তবে, কম ঝুঁকির আরও একটি  বিনিয়োগ করার বিকল্প হলো সোনা কিনে রাখা। কারণ সোনার দাম দিন দিন বাড়ছে। ব্যাঙ্ক যেখানে FD-তে ৬.৫০ থেকে ৮ শতাংশ সুদ অফার করছে, সেখানে সোনায় বিনিয়োগকারীরা গত অর্থবছরে ১৫ শতাংশের বেশি মুনাফা করেছে। কি কারণে বাড়ছে সোনার দাম? জেনেনিন বিস্তারিত তথ্য আজকের এই নিবন্ধে। 

সোনা কিনলে ব্যাঙ্কের FD-র থেকে দ্রুত টাকা বাড়বে 

সাধারণত দেখাযায় সোনার দাম তখনই বাড়ে যখন সেনসেক্স নরম থাকে, তবে এবার বাজার বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সোনার দামও বৃদ্ধি পাচ্ছে। গতকাল দিল্লিতে ২৪ ক্যারেট সোনার দাম প্রতি ১০ গ্রামে ৭১,০৫০ টাকা ছিল। যা আজ থেকে প্রায় ১ বছর আগে ২ এপ্রিল, ২০২৩-তে ২৪ ক্যারেট সোনার দাম ছিল প্রতি ১০ গ্রামে ৬১,৬৩০ টাকা। অর্থাৎ মাত্র ১ বছরে সোনার দাম ১৫ শতাংশের বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। আপনি যদি একবছর আগে ব্যাঙ্কের FD-তে টাকা বিনিয়োগ করতে তাহলে আজ ৬.৫০ থেকে ৮ শতাংশ সুদ পেতেন। অন্যদিকে সোনা কিনলে ব্যাঙ্কের FD-র থেকে দ্রুত টাকা বাড়ত, প্রায় ১৫ শতাংশের বেশি মুনাফা পেতেন। 

আরোও পড়ুন » Gold Purity Test: এই 3 উপায়ে সোনার বিশুদ্ধতা পরীক্ষা করুন, সোনা কেনার আগে অবশ্যই দেখুন।

সোনার দাম বাড়ার কারণ কি? 

সোনার দাম বাড়বে কি কমবে সেটি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নির্ধারণ করা হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সুদের হার কমাতে চলেছে এবং ডলারের বিকল্প হিসেবে বাজারে অন্য মুদ্রা চালু করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে তাই বিশ্বের সমস্ত কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক সোনা কিনছে বলে জানিয়েছেন ব্যাঙ্ক অফ বরোদার চিফ ইকোনমিস্ট মদন সবনভিস। SBI-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, মোট ১০৩৭ টন সোনা কিনেছে বিশ্বের বড় বড় কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কগুলি। জুন মাসে ফেডারেল রেট কোমর কারণে বিনিয়োগকারীরা সোনা কেনার দিকে বেশি আগ্রহ দেখাচ্ছে। রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (RBI) ৪.৭ টন সোনা কিনেছে গত ফেব্রুয়ারিতে। 

মূল কথা হলো যে, ফেডারেল ব্যাঙ্ক অফ আমেরিকা সুদের হার কমাতে চাই এরফলে কমতে পারে ডলারের মূল্য। তাই বিভিন্ন দেশ ডলারের উপর নির্ভর না থেকে বাজারে অন্য মুদ্রা চালু করার পরিকল্পনা করছে। এই সমস্ত কারণে বিশ্বের বড়ো বড়ো ব্যাঙ্কগুলো প্রচুর পরিমাণে সোনা কিনে রাখছে। তাছাড়াও গত ২০ বছরে মাত্র ১.৭ শতাংশ সোনার খনন বেড়েছে বলে জানিয়েছেন ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিল। এর মানে সোনার চাহিদা বাড়ছে কিন্তূ সোনার সরবরাহ সীমিত রয়েছে, এই কারণে সোনার দাম বাড়ছে।

অবশ্যই পড়ুন » Gold Rate in India: সোনায় বিনিয়োগ করতে চান! দেখে নিন বিগত ৫০ বছরের বেশি সময় ধরে সোনার দাম

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত হন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us