শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

Post Office Scheme: মাসে ৫০০ টাকা করে জমা করলেই হবেন “লাখপতি”! পোস্ট অফিসের এই স্কিম সম্পর্কে অবশ্যই জানা দরকার

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Post Office Scheme: আপনি যদি পোস্ট অফিসে বিনিয়োগ করতে চান তাহলে একাধিক স্কিম দেখতে পাবেন। তবে আজ আমরা যে স্কিমের সম্পর্কে আলোচনা করব তার নাম হল পাব্লিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (Post Office PPF Scheme)। মাস শেষ হওয়ার পর আপনার কাছে যদি বেশি টাকা না বাঁচে, তবুও পোস্ট অফিসের এই স্কিমে অল্প পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ করে “লাখপতি” হতে পারবেন। পোস্ট অফিসে PFF স্কিমে কিভাবে মাসে ৫০০ টাকা করে জমা করলেই “লাখপতি” হবেন? এবং এই স্কিমের বৈশিষ্ট্যগুলি জানার জন্য সম্পূর্ণ নিবন্ধটি পড়ুন। 

পাব্লিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (Post Office PPF Scheme) 

অর্থ বিনিয়োগ করার জন্য পোস্ট অফিস একটি খুবই নিরাপদ জায়গায় এবং এখানে ভালো পরিমান রিটার্নও পাওয়া যায়। এই কারণে এখনো অনেকে শেয়ার বাজারে ঝুঁকি না নিয়ে নিজের টাকা পোস্ট অফিসে বিনিয়োগ করতে বেশি পছন্দ করে। পোস্ট অফিসে বিনিয়োগ করার জন্য একাধিক বিকল্প রয়েছে, যার মধ্যে পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (PPF) একটি খুবই জনপ্রিয় স্কিম। প্রতি আর্থিক বছরে সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা থেকে এই স্কিমে বিনিয়োগ শুরু করতে পারবেন এবং সর্বোচ্চ ১.৫ টাকা বিনিয়োগ পর্যন্ত কর ছাড় পাবেন। Post Office PPF Scheme-এর পরিপক্কতার সময়কাল ১৫ বছর এবং পরে আরও ৫ বছর বাড়াতে পারবেন। পোস্ট অফিসের বিভিন্ন স্কিমের সুদের হার প্রতি তিন মাস অন্তর পরিবর্তন করা হয়। বর্তমানে এই স্কিমে ৭.১০ শতাংশ সুদের হার প্রদান করা হচ্ছে পোস্ট অফিস। 

মাসে ৫০০ টাকা করে জমা করলেই হবেন লাখপতি 

পোস্ট অফিসের পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ডে আপনি যদি প্রতি মাসে ৫০০ টাকা করে জমা করেন তাহলে বছরে আপনার ৬০০০ টাকা জমা করা হবে। এই স্কিমের মেয়াদ পূর্ণ হওয়া পর্যন্ত অর্থাৎ ১৫ বছর পর আপনার জমাকৃত অর্থের পরিমাণ হবে ৯০,০০০ টাকা। পোস্ট অফিসের PPF স্কিমের বর্তমান সুদের হার অর্থাৎ ৭.১০ শতাংশ বার্ষিক সুদ অনুযায়ী আপনার জমাকৃত অর্থের উপর প্রাপ্ত সুদের পরিমাণ হবে ৭২,৭২৮ টাকা। এইভাবে আপনি পোস্ট অফিসের পাব্লিক প্রভিডেন্ট ফান্ড স্কিমে মাসে ৫০০ টাকা করে জমা করলে মেয়াদপূর্নিতে মোট ১,৬২,৭২৮ টাকা রিটার্ন পাবেন। 

আরো পড়ুন: Post Office RD – পোস্ট অফিসের এই স্কিমে মাত্র ১৫০ টাকা করে জমা করলেই ৫ বছর পর ৩ লাখ টাকা পাবেন।

পোস্ট অফিসের PPF স্কিমের মূল বৈশিষ্ট্য 

  • পোস্ট অফিসের এই স্কিমে আপনি প্রতি আর্থিক বছরের সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা থেকে বিনিয়োগ করতে পারেন।
  • প্রতি আর্থিক বছরে ১.৫ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ পর্যন্ত ধরা 80C এর অধীনে কর ছাড় পাবেন।
  • বর্তমান সুদের হার অনুযায়ী বার্ষিক ৭.১০ শতাংশ চক্রবৃদ্ধি সুদের সুবিধা পাবেন।
  • বিনিয়োগ শুরু করার ৫ বছর পর আপনি মোট বিনিয়োগ করা অর্থের ৫০ শতাংশ পর্যন্ত তুলে নিতে পারবেন।
  • অ্যাকাউন্টধারী অসুস্থ হয়ে পড়লে অথবা তার সন্তানের উচ্চ শিক্ষার জন্য অকাল প্রত্যাহার করা যাবে, তবে এতে নির্দিষ্ট পরিমাণ চার্জ লাগবে।

আরও পড়ুন: Post Office Account Opening Form – পোস্ট অফিসে অ্যাকাউন্ট খুলতে চান? এইভাবে ডাউনলোড করুন আবেদন ফর্ম।

কিভাবে বিনিয়োগ করবেন? 

এতে বিনিয়োগ করার জন্য আপনাকে প্রথমে নিকটবর্তী পোস্ট অফিসে গিয়ে পাব্লিক প্রভিডেন্ট ফান্ড অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। এর জন্য আপনাকে প্রথমে নির্দিষ্ট ফর্ম পূরণ করতে হবে এবং প্রয়োজনীয় নথিপত্রের কপি জমা দিতে হবে। অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য আবেদনকারীর পরিচয়পত্র, ঠিকানা প্রমাণপত্র, প্যান কার্ড, পাসপোর্ট সাইজ ফটো এবং নমিনি ফর্ম প্রয়োজন। একাউন্ট খোলার আগে পোস্ট অফিসের কর্মীর কাছ থেকে এই স্কিম সম্পর্কে আরো বিস্তারিত বুঝেনিতে হবে।

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us