শেয়ার বাজার মিউচুয়াল ফান্ড পোস্ট অফিস স্কিম ব্যাঙ্ক স্কিম ক্রেডিট কার্ড ডিমেট অ্যাকাউন্ট ইন্সুরেন্স সমস্ত FD ক্যালকুলেটর

Business Idea: কম সময়ে বেশি আয় করতে চাইলে এই ২টি ব্যাবসা করুন, সরকার থেকে পাবেন সাহায্য

Photo of author

By Joydeep

গ্রুপে যুক্ত হনচ্যানেলে যুক্ত হন

Business Idea: বর্তমানে অনেকেই বাড়তি রোজগার করার জন্য ব্যাবসা শুরু করার কথা ভাবছেন। আবার অনেকেই তো চাকরি করা সত্ত্বেও সঙ্গে কিছু একটা ব্যাবসা করতে চাই। আপনি যদি কোনো ব্যাবসা করার কথা ভাবছেন তাহলে এই ২টি ব্যাবসা একসঙ্গে শুরু করতে পারেন। মাছ চাষের সঙ্গে হাঁস পালনের ব্যাবসা থেকে আপনি ভালো পরিমাণ অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। এছাড়াও ব্যাবসা করার জন্য সরকার থেকে সাহায্যও পাবেন। কিভাবে আপনি এই ব্যাবসা শুরু করবেন? এবং এই ২টি ব্যাবসা একসঙ্গে শুরু করার কি কি সুবিধা রয়েছে? এই বিষয়ে বিস্তারিত জানবো আজকের এই নিবন্ধে। 

মাছ চাষের সঙ্গে হাঁস পালনের ব্যাবসা 

মাছ চাষের সঙ্গে হাঁস পালন করা একটি খুবই লাভজনক ব্যাবসা। আপনি যে পুকুরে মাছ চাষ করবেন, ওই পুকুরের জল পরিষ্কার রাখতে হাঁস সাহায্য করবে। এছাড়াও, হাঁস পুকুরের জলে সাঁতার করলে জলের অক্সিজেনের মাত্রাও বাড়বে। এরফলে মাছের বৃদ্ধি হবে এবং আরো ভালো মাছ চাষ হবে, অর্থাৎ আয় আরো বেশি হবে। এছাড়াও হাঁস পালনের ব্যাবসা থেকেও আরও বাড়তি আয় হবে। 

কিভাবে এই ২টি ব্যাবসা শুরু করবেন? 

মাছ চাষ করার জন্য প্রথমত একটি পুকুর থাকা আবশ্যক। ওই পুকুরের গভীরতা যেন কমপক্ষে ১.৫ মিটার থেকে ২ মিটার হয়, এর চেয়ে বেশি গভীরতা থাকলেও চলবে। এছাড়াও প্রতি হেক্টর পুকুরে প্রয়োজন অনুসারে ২৫০ থেকে ৩৫০ কেজি চুন ব্যাবহার করতে হবে। এরপর ওই পুকুরে মাছ চাষ করতে পারবেন। এর সঙ্গে হাঁস পালন করতে হলে পুকুরের সামনে এবং পুকুরের চারপাশে বাঁশ এবং কাঠ দিয়ে একটি ঘেরা তৈরি করতে হবে। যার মধ্যে আপনি হাঁস পালন করতে পারবেন। মনে রাখবেন ঘেরাটি যেন ভালো উচ্ছতা সম্পন্ন হয়, তানাহলে হাঁস উড়ে বাইরে বেরিয়ে যাবে। প্রতি হেক্টর জমিতে ২৫০টি থেকে ৩০০টি হাঁস খুব সহজেই পালন করতে পারবেন। 

আরও পড়ুন: Business Idea For Village – গ্রামে ভালো চলবে এই ৫টি ব্যাবসা, প্রথম মাস থেকেই হবে আয়।

এই ব্যাবসার সুবিদা 

আপনি যদি মাছ চাষের সঙ্গে হাঁস পালনের ব্যাবসা একসঙ্গে করেন তাহলে প্রচুর সুবিধা পাবেন। যেমন শুধু হাঁস পালন করতে প্রতিদিন হাঁসকে ১২০ গ্রাম দানা খেতে দিতে হবে, কিন্তূ যদি মাছ চাষের সঙ্গে করেন তাহলে ৬০ থেকে ৭০ গ্রাম দানা দিলেই হবে। বাকি খাবার তারা পুকুর থেকেই পেয়ে যাবে। পুকুরের পোকামাকড়, গাছপালা, ব্যাঙ্ক ইত্যাদি হাঁস খেয়ে ফেলবে, যেগুলি মাছের পক্ষে ক্ষতিকর। আবার, ২০০ থেকে ৩০০টি হাঁসের বিষ্ঠা এক হেক্টর পুকুরের মাছের জন্য যথেষ্ট। এছাড়াও, পুকুরে হাঁস সাঁতার কাটলে বায়ুমণ্ডল থেকে অক্সিজেন জলে দ্রবীভূত হবে, যা মাছকে বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে। এই ২টি ব্যাবসা একসঙ্গে করলে বছরে ৩৫০০ থেকে ৪০০০ কেজি মাছ, ৫০০ থেকে ৬০০ কেজি হাঁস মাংস এবং ১৫,০০০ থেকে ১৮,০০০ ডিম বিক্রি করতে পারবেন। এর থেকে আপনি অনুমান করতে পারেন যে, এই ২টি ব্যাবসা একসঙ্গে করলে কতো বেশি আয় করা সম্ভব। 

আরও পড়ুন: Business Idea – সুপারি চাষে হবে মোটা টাকা আয়, এই ব্যাবসা ৭০ বছর পর্যন্ত চলবে! রইল পদ্ধতি।

সরকার থেকে পাবেন সাহায্য 

ব্যাবসা শুরু করার জন্য মূলধন থাকা জরুরি, মূলধন ছাড়া এই ব্যাবসা শুরু করা যাবে না। কিন্তূ, বর্তমানে ব্যাবসা করার জন্য নানা ভাবে আর্থিক সাহায্য করছে সরকার। আপনার কাছে যদি ব্যাবসা করার জন্য যথেষ্ট পুঁজি না থাকে তাহলে সরকারের কাছ থেকে কম সুদে লোন নিতে পারবেন। যেমন ব্যাবসা করার জন্য স্ব-সহায়াক দলকে কম সুদে লোন দেয় রাজ্য সরকার। আবার প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনায় আবেদন করে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে ব্যাবসার জন্য লোন নিতে পারবেন।

আরও পড়ুন: PMMY Loan – প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা লোন! ব্যাবসা করার জন্য ১০ লক্ষ টাকা লোন দেবে কেন্দ্র সরকার, দেখে নিন আবেদন পদ্ধতি।

এই ধরনের অর্থনীতি সম্পর্কিত তথ্য সহজ বাংলা ভাষায় পেতে আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন 👇

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপJoin Us
আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলFollow Us
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলJoin Us
আমাদের ফেসবুক পেজFollow Us
Google নিউজে ফলো করুনFollow Us